আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে সংঘাতের দিকে যেতে চায় বিএনপি: কাদের

Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার : আন্দোলনের নামে বিএনপি যতই বিশৃঙ্খলা করুক না কেন, আওয়ামী লীগ রাজপথে থেকে তা মোকাবেলা করবে বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সেই সঙ্গে বিশৃঙ্খলা রুখে জনগণের জান-মালের নিরাপত্তা নিশ্চিতের পাশাপাশি আওয়ামী লীগ দেশের গণতন্ত্র নিশ্চিত করবে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে অমর একুশে বইমেলায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের স্টল পরিদর্শনে এসে এমন মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিএনপি জ্বালাও-পোড়াও আন্দোলনের জন্য সবসময় সেরা ছিল। আন্দোলনের সফলতা না পেয়ে তারা এখন বিশৃঙ্খলা ও সংঘাতের দিকে এগোচ্ছে। বিএনপির পদযাত্রা কর্মসূচির নামে বিশৃঙ্খলা করছে। আর আওয়ামী লীগ জনগণের নিরাপত্তার জন্য কাজ করছে।’

আওয়ামী লীগ সংঘাত চায় না, বরং শান্তি চায় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘বিএনপি আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে সংঘাতের দিকে যেতে চায়। ২০১৩-১৪ সালের মতো সহিংসতা ও অগ্নিসন্ত্রাসের মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন করতে না পারে সে জন্য সরকারের পাশাপাশি আওয়ামী লীগ সতর্ক ও প্রস্তুত আছে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা সরকারে আছি, শান্তি চাই। বিশৃঙ্খলা কেন করব? পাল্টাপাল্টি সমাবেশ আমরা দেইনি। নির্বাচন পর্যন্ত আমাদের নিজস্ব কর্মসূচি আছে। আমরা শান্তি সমাবেশ, গণসংযোগ করছি। আমরা কোনো সংঘাত চাই না, প্রতিযোগিতা চাই। রাজনীতিতে ও নির্বাচনে প্রতিযোগিতা চাই। বিএনপি সংঘাত চায়।’

আওয়ামী লীগের শীর্ষ এই নেতা বলেন, ‘বর্তমানে দেশে কোনো সংঘাতময় পরিস্থিতি নেই। বিক্ষোভ সমাবেশ করতে লোক লাগে, সংঘাত করতে দু’-চারজন হলেই চলে। বিএনপির সে স্বভাব ও শিক্ষা আছে।’ বিএনপির কড়া সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘তাদের নিজের ঘরেই গণতন্ত্র নেই। তারা দেশে গণতন্ত্র চায় না, তারা চায় সংঘাতময় পরিস্থিতি তৈরি করে অন্ধকারের চোরাগলি দিয়ে ক্ষমতায় যেতে।’

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে খালেদা জিয়ার অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘তিনি দণ্ডিত- এই অবস্থানটা তাঁর নির্বাচন করার পক্ষে নয়। নির্বাচনের যোগ্য তিনি নন। বিএনপির নেতা হিসেবে তিনি যদি রাজনীতি করতে চান, তাহলে তাঁকে মুক্তির শর্ত অনুযায়ী করতে হবে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি নেতারা সকালবেলা ঘুম থেকে উঠেই অ্যাম্বাসি ও হাইকমিশনে নালিশ করতে যায়। এ জন্য বিএনপিকে মানুষ নালিশ পার্টি বলে। চাপে আওয়ামী লীগ সরকার নয়, বিএনপিই চাপে আছে। ডোনাল্ড লু’র সঙ্গে বৈঠক না হওয়ায় বিএনপি এখন হতাশ। আমরা চাপে নেই। আমরা সংবিধান অনুযায়ী চলছি।’ পরে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বইমেলা প্রাঙ্গণে চিত্রনায়িকা কেয়া রচিত ‘প্রেমিকের নাম কবিতা’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।