মামুনুলের জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করবে সিটিটিসি

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : দেশজুড়ে হেফাজতে ইসলামের তাণ্ডবের ঘটনায় গ্রেফতার দলটির নেতা মামুনুল হকের সঙ্গে বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনের সংশ্লিষ্টতার তথ্য পাওয়া গেছে। এ অবস্থায় জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট (সিটিটিসি)।

রবিবার (৯ মে) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সিটিটিসির প্রধান মো. আসাদুজ্জামান এ কথা জানান।

শনিবার (৮ মে) দিনগত রাতে মোহাম্মদপুরের বছিলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে আনসার আল ইসলামের চার সদস্যকে আটকের বিষয় জানাতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

বসিলা এলাকায় হেফাজত নেতা মামুনুলের আধিপত্য ছিল, এছাড়া তার সঙ্গে বিভিন্ন জঙ্গি গোষ্ঠীর সম্পৃক্ততার বিষয়টি আলোচনায় এসেছে। আটক চার জঙ্গির সঙ্গে মামুনুলের যোগাযোগ ছিল কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, মামুনুলের বিষয়ে আমাদের অফিসাররা বিভিন্ন সময়ে তথ্য জানিয়েছে। তার সঙ্গে জঙ্গি বিষয়ক কিছু কথাবার্তা উঠে এসেছে। এ বিষয়গুলো নিয়ে আমরা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবো।

এর আগে রিমান্ডে থাকা মামুনুলের বিষয়ে পুলিশ জানায়, ভগ্নিপতি নেয়ামত উল্লাহর মাধ্যমে পাকিস্তানি জঙ্গিগোষ্ঠীর সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ হয় তার। ২০০৫ সালে তিনি পাকিস্তানে যান এবং সেখানে ৪০ দিন অবস্থান করেন। পরে জঙ্গি ও উগ্রবাদী মতাদর্শ নিয়ে দেশে ফেরেন। দেশে এসে বিভিন্ন স্থানে বোমা হামলা, অগ্নিসংযোগ ও সহিংসতার ঘটনা ঘটান।

পাকিস্তানের ‘তেহেরিক-ই-লাব্বায়িক’ নামে সংগঠনের আদলে তারা হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশকে গঠন করে পাকিস্তান বা আফগানিস্তানের মতো এ দেশকে গড়ে তুলতে চেয়েছিল।

গত ১৮ এপ্রিল রাজধানীর মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া মাদরাসা থেকে মামুনুল হককে গ্রেফতার করা হয়।