কুষ্টিয়ায় সেপটিক ট্যাংকে নেমে দুই শ্রমিকের মৃত্যু

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : কুষ্টিয়ায় সেপটিক ট্যাংকের ভেতরে নেমে কাজ করার সময় অক্সিজেন সংকটে দুই নির্মাণ শ্রমিক মারা গেছেন।

শুক্রবার (০৭ মে) সকালে কুষ্টিয়া শহরতলীর জুগিয়া পালপাড়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলেন- জেলার মিরপুর উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের সামেদ মল্লিকের ছেলে সাদেক বাচ্চু (৪০) এবং একই গ্রামের বাসিন্দা তার সহাকারী মানিক হোসেন (৩২)।

স্থনীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সকালে নির্মাণ শ্রমিক সাদেক তার সহযোগী মানিককে সঙ্গে নিয়ে ১০/১২ দিন আগে ঢালাই দেওয়া সেপটিক ট্যাংকের সাটারিং খুলতে ট্যাংকের ভেতরে নামেন। এরপর বেশ কিছুক্ষণ তাদের কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে গৃহকর্তা ও সাদেকের ভগ্নিপতি কুষ্টিয়া সদর উপজেলার যুগিয়া গ্রামের বাসিন্দা আমিরুল ইসলাম আশপাশের লোকজন নিয়ে ট্যাংকের ভেতরে তাদের অচেতন অবস্থায় দেখতে পান। এ অবস্থায় সাদেক ও মানিককে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শওকত কবির বলেন, বৃষ্টির কারণে বাড়ির লোকজন ট্যাংকের খোলা মুখ বন্ধ রেখেছিলেন। দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকায় সেখানে গ্যাসের সৃষ্টি হয়, সেই সঙ্গে সৃষ্টি হয় অক্সিজেন সংকটের। ধারণা করা হচ্ছে, ভেতরে জমা গ্যাসের মধ্যে অক্সিজেন না থাকায় তাদের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট এলেই বিষয়টি পরিষ্কার হবে।