নিমপাতায় রয়েছে বেশ কয়েকটি রোগের সমাধান

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : নিমপাতার গুণাগুণ সম্পর্কের নানা লোকের নানা মত। কিন্তু বাড়ির পাশেই যদি নিমগাছ থাকে তাহলে আপনি খুবই সৌভাগ্যবান। কারণ বেশ কয়েকটি উপকারে লাগতে পারে নিমপাতা। সেগুলি কী জেনে নিন—

কেটে বা ছড়ে গেলে বা পোকার কামড় খেলে ক্ষতস্থানে নিমপাতা বাটা লাগিয়ে নিন। ইনফেকশন হবে না। ক্ষত তাড়াতাড়ি শুকাবে।
খুশকির সমস্যা থাকলে নিমপাতা পানিতে সিদ্ধ করুন। পানির রং সবুজ হলে নামিয়ে ঠান্ডা করুন। শ্যাম্পু করার পরে ওই পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।
চোখ জ্বালা করলে বা চোখ লাল হয়ে গেলে নিমপাতা পানিতে সিদ্ধ করুন। পানি ঠান্ডা হলে, তাই দিয়ে চোখ ধুলে উপকার পাবেন।
ব্রণ বা মুখে কালো ছোপ থাকলে নিমপাতা বাটা লাগিয়ে নিন।
মধুর মধ্যে নিম পাতার রস মেশান। কানের ভিতর ইনফেকশন হলে বা কানের ভিতরে চুলকানি হলে এই মিশ্রণের দু-চার ফোঁটা কানের ভিতরে লাগান।
ত্বকে বিভিন্ন ধরনের রোগ হয়। কাঁচা হলুদ বাটার সঙ্গে নিমপাতা বাটা মিশিয়ে ব্যবহার করুন।
নিমপাতা কুচি করে এক গ্লাস পানির সঙ্গে মিশিয়ে খান। এতে শরীরে রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা বাড়বে।
দাঁতে সমস্যা হলে বা মুখে দুর্গন্ধ হলে নিম ডাল দিয়ে দাঁত মাজুন।
ডায়াবেটিস রোগীদের জন্যও নিমপাতা খুব উপকারী। নিয়ম করে নিমপাতা খান।
পেটের সমস্যা হলেও নিমপাতা খেলে উপকার পাবেন।