বেতন না পাওয়ায় মালিকের ছেলেকে অপহরণ

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ টুকেরবাজার থেকে তিন বছরের এক শিশুকে অপহরণের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কানাইঘাট থেকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব। এ সময় অপহরণকারী মো. আব্দুল্লাহকে আটক করা হয়েছে। তিনি কানাইঘাট থানার আকতালু গ্রামের নুরুল হকের ছেলে।

শুক্রবার বেলা ১১টায় র‌্যাব-৯ সিলেট কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক লে. কর্নেল আলী হায়দার মো. আজাদ আহমদ জানান, বুধবার বিকেল ৪টায় কোম্পানীগঞ্জ টুকের বাজার নিজ বাড়ি থেকে হঠাৎ করে নিখোঁজ হয় দুই বছর ৩ মাস বয়সী শিশু জুনায়েদ ইসলাম কাশেম। তাকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে কাশেমের বাবা আব্দুল জলিল কোম্পানীগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। অপহরণকারী তাদের কাছে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

তিনি আরও জানান, পুলিশের পরামর্শে ছেলে অপহরণের বিষয়টি র্যাবকে জানায় তার বাবা-মা। পরবর্তীতে অভিযানে নামে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার বিকেলে শিশু কাশেমকে বাড়ি থেকে উদ্ধার ও অপহররকারী আব্দুল্লাহকে গ্রেফতার করা হয়। উদ্ধার হওয়া শিশু ও গ্রেফতার অপহরণকারীকে কানাইঘাট থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

এদিকে অপহরণকারী আব্দুল্লাহ জানান, প্রায় ৩ মাস আগে তিনি কোম্পানিগঞ্জ উপজেলার টুকেরবাজারে অপহৃত শিশুর বাবা আব্দুল জলিলের বিস্কুট ফ্যাক্টরিতে চাকরি নেন। পাওনা টাকা নিয়ে বিরোধের জের ধরে কিছু দিন আগে চাকরি ছেড়ে সে অন্য একটি ফ্যাক্টরিতে চলে যান। ৮ হাজার টাকা মজুরি দেবে বলে তাকে চাকরি দেন আব্দুল জলিল। কিন্তু ৩ মাসে একটি টাকাও না পেয়ে চাকরি ছেড়ে অন্যত্র চলে যান।

তিনি আরও জানান, আব্দুল জলিলের কাছে ৩ মাসের বেতন ২৪ হাজার টাকা বার বার চাওয়ার পরও না পেয়ে বাধ্য হয়ে কাশেমকে অপহরণ করেন।

শিশু কাশেমের বাবা আব্দুল জলিল জানান, ৩ হাজার ৬০০ টাকা পাওয়ার কারণে আব্দুল্লাহ আমার শিশু সন্তানকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি করেছিল।

Be the first to comment on "বেতন না পাওয়ায় মালিকের ছেলেকে অপহরণ"

Leave a comment

Your email address will not be published.




fifteen + 17 =