২৭ এপ্রিল উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়ার দুই রাষ্ট্রনেতার বৈঠক

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : এক দশকের বেশি সময় পর প্রথমবারের মতো উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়ার দুই রাষ্ট্রনেতা বৈঠকে বসছেন। আগামী ২৭ এপ্রিল এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে নিশ্চিত করেছে উভয় কোরিয়া।

বৃহস্পতিবার দুই দেশের যৌথ এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইনের ওই বৈঠক সীমান্তের যুদ্ধবিরতি গ্রাম পানমুনজমে অনুষ্ঠিত হবে।’

দুই দেশের উচ্চ-পর্যায়ের কর্মকর্তারা ওই বৈঠকের প্রস্তুতির আগে সাক্ষাতের পর তারিখ ঘোষণা করেছেন। কিম জং উন ও চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের বৈঠকের একদিন পর দক্ষিণ কোরিয়ার নেতার সঙ্গে উত্তরের এ প্রেসিডেন্টের বৈঠকের ঘোষণা এল।

শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠকের সময় কোরীয় উপদ্বীপকে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের অঙ্গীকার করেন কিম। তবে তা শর্ত সাপেক্ষে বলে জানিয়েছেন তিনি।

North-korea-7

সম্প্রতি উত্তর কোরিয়ার এই নেতা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকে বসতে রাজি হন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কিমের সঙ্গে বৈঠকে বসার প্রস্তাবে সাড়া দিয়েছেন। চিরবৈরী এ দুই রাষ্ট্রের দুই নেতার বৈঠক আগামী মে মাসে অনুষ্ঠিত হতে পারে।

উত্তর কোরিয়ার নেতার সঙ্গে দক্ষিণের প্রেসিডেন্ট বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার আগে আগামী ৪ এপ্রিল আবারো আলোচনায় বসবেন দুই কোরিয়ার সরকারি কর্মকর্তারা। এসময় তারা বৈঠকের প্রস্তুতি, নিরাপত্তা গণমাধ্যমের ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা করবেন।

উ. কোরিয়ার রাষ্ট্রনেতার সঙ্গে এ বৈঠককে মুন জায়ে ইনের সফলতা হিসেবে দেখা হচ্ছে। ২০১৭ সালে দক্ষিণের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর মুন জায়ে ইন বলেছিলেন, কোরীয় উপদ্বীপের শান্তির জন্য আমার সাধ্য অনুযায়ী সবকিছুই করবো।

এর আগে সর্বশেষ আন্তঃকোরীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ২০০৭ সালে। ওই সময় দক্ষিণের প্রেসিডেন্ট রোহ মু-হিউন উত্তর কোরিয়ার বর্তমান প্রেসিডেন্ট কিমের বাবা কিম জং ইলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

North-korea-1

২০১১ সালে উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর প্রথমবারের মতো দেশের বাইরে বেইজিং সফরে করেন কিম জং উন। চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া বলছে, প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে রোববার ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে কিমের।

উত্তর কোরিয়ার অন্যতম অর্থনৈতিক মিত্র চীন। দক্ষিণ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সম্প্রতি বৈঠকে বসতে রাজি হয়েছেন কিম জং উন। ওই বৈঠকের আগে কিম জং উন বেইজিং সফর করে শলা-পরামর্শ করতে পারেন বলে আগে থেকেই ধারণা করা হচ্ছিল।

রোববার আকস্মিকভাবে স্ত্রী রি সোল জুকে নিয়ে বেইজিং পৌঁছান কিম জং উন। অত্যন্ত গোপনীয়তার সঙ্গে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে উত্তর কোরিয়া থেকে সবুজ রঙয়ের বুলেট প্রুফ ট্রেনে চেপে বেইজিংয়ে যান তিনি। মঙ্গলবার বিকেলের দিকে কিমকে বহনকারী ট্রেনটি বেইজিং ত্যাগ করে।

সূত্র : বিবিসি, সিএনএন।

Be the first to comment on "২৭ এপ্রিল উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়ার দুই রাষ্ট্রনেতার বৈঠক"

Leave a comment

Your email address will not be published.




three + 10 =