টেম্পারিং বিতর্কে স্পন্সরও হারালো অস্ট্রেলিয়া

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : এক বিতর্ক একেবারে কোনঠাসা করে দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটকে। দলে বড় ধরণের উলট-পালট হয়েছে। এরপরও রেহাই মিলছে না। মিলিয়ন ডলারের ক্ষতির মুখে পড়তে যাচ্ছে অসি বোর্ড। বল টেম্পারিংয়ের ঘটনা জানার পর অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাদের অন্যতম স্পন্সর প্রতিষ্ঠান ‘ম্যাগেলেন’।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে সাত বছরের চুক্তির মাত্র তিন বছর পেরিয়েছে ‘ম্যাগেলেন’-এর। এরই মধ্যে তারা জানিয়ে দিয়েছে, এমন কান্ডের পর দলের সঙ্গে আর নয়। এক বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠানটি বলেছে, ‘নেতৃত্বে অস্ট্রেলিয়ার পুরুষ টেস্ট ক্রিকেট দলের এক চক্রান্তে আইন ভঙ্গ হয়েছে। তারা পরিষ্কারভাবেই দক্ষিণ আফ্রিকায় তৃতীয় টেস্ট চলার সময় অযাচিত একটা সুবিধা নিতে যাচ্ছিল। এটা আমাদের সঙ্গে যায় না। তাই ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে সম্পর্কোচ্ছেদ ছাড়া উপায় খোলা নেই।’

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ম্যাগেলেনের চুক্তিটা কত টাকার সেটা পরিষ্কারভাবে জানা যায়নি। তবে অসি গণমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, টাকার অঙ্কটা ২০ মিলিয়ন অস্ট্রেলিয়ান ডলারের মতো হবে।

এদিকে ব্যক্তিগত স্পন্সরও হারিয়েছেন টেম্পারিং কান্ডে জড়িত থাকা স্টিভেন স্মিথ আর ডেভি ওয়ার্নার। স্মিথের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করেছে ‘উইট-বিক্স ব্র্যান্ড এম্বাসেডর’। ওয়ার্নার হারিয়েছেন দুটি বড় স্পন্সর-‘স্পোর্টসওয়ার মেকার এসিকস’ এবং ‘এলজি’-র চুক্তি।

Be the first to comment on "টেম্পারিং বিতর্কে স্পন্সরও হারালো অস্ট্রেলিয়া"

Leave a comment

Your email address will not be published.




thirteen + two =