করাচিকে হারিয়ে ফাইনালে তামিমের পেশোয়ার

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : চোটের কারণে করাচির বিপক্ষে দ্বিতীয় এলিমিনেটর ম্যাচে পেশোয়ারের হয়ে মাঠে ছিলেন না টাইগার তারকা তামিম ইকবাল। তবে জয় পেতে কোন সমস্যা হয়নি দলটির। বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে কামরান আকমলের ঝড়ো হাফ সেঞ্চুরির উপর ভর শেষ পর্যন্ত করাচিকে ১৩ রানে হারিয়ে ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে দলটি।

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় এলিমিনেটর ম্যাচে বৃষ্টির কারণে ম্যাচ শুরু হতে দেরি হলে খেলা ২০ থেকে নেমে আসে ১৬ ওভারে। টস জিতে পেশোয়ারকে ব্যাটিং করতে পাঠায় করাচির অধিনায়ক মোহাম্মদ আমির। তামিম না থাকলেও শুরু থেকেই ঝড়ো ব্যাটিং শুরু করেন দুই ওপেনার কামরান আকমল ও আন্দ্রে ফ্লেচার। দুইজনে মিলে গড়েন শতরানের জুটি।

ফ্লেচার ৩০ বলে ৩৪ রান করে ফিরলেও কামরান আকমল মাত্র ২৭ বলে খেলেন ৭৭ রানের ঝড়ো ইনিংস। তার ইনিংসে ছিল পাঁচটি চার ও আটটি ছয়ের মার। আর শেষ দিকে অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি ১ বলে ২৩ রান করলে ১৭০ রানের বড় সংগ্রহ পায় দলটি।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি করাচির। দলীয় ১৩ রানেই ব্যক্তিগত ১ রান করে সাজঘরে ফিরে যান ওপেনার মুক্তার আহমেদ। তবে দ্বিতীয় উইকেটে বাবর আজম ও ডেনলি ১১৭ রানের জুটি গড়ে দলকে জয়ের স্বপ্ন দেখচ্ছিল।

তবে ৬৩ রান করে বাবর আজম সাজঘরে ফিরে গেলে জয়ের স্বপ্ন ফিকে হয়ে যায়। শেষ ওভারে জয়ের জন্য ২৭ রানের দরকার ছিল দলটির। ডেনলি চেষ্টা করেছিলেন। তবে শেষ পর্যন্ত ১৩ রানের বেশি নিতে পারেনি। ডেনলি ৭৯ রানে অপরাজিত থাকেন।

আগামী ২৫ মার্চ (রোববার) ফাইনালে ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের বিপক্ষে ফাইনালে মাঠে নামবে পেশোয়ার।

Be the first to comment on "করাচিকে হারিয়ে ফাইনালে তামিমের পেশোয়ার"

Leave a comment

Your email address will not be published.




5 × 2 =