বালু ভরাট নিয়ে প্রতারণা : ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে মামলা

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : বালু ভরাট নিয়ে প্রতারণা করার অভিযোগে গ্রামীণ টেলিকম ট্রাস্টের চেয়ারম্যান ও নোবেল বিজয়ী ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক।

মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম সুব্রত ঘোষের আদালতে মামলাটি করেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান তাজ এন্টারপ্রাইজের মালিক বাহাদুল ইসলাম। আদালত মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য রাজধানীর পল্লবী থানার ওসিকে নির্দেশ দেন।

মামলায় ড. ইউনূস ছাড়াও আরও তিন জনকে এ মামলায় আসামি করা হয়েছে। তারা হলেন- গ্রামীণ টেলিকম ট্রাস্টের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আশরাফুল হাসান, গ্রামীণ টেলিকম ট্রাস্টের দুই কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম ও আসাদুজ্জামান।

বাদীর আইনজীবী ফেরদৌস আহম্মেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান তাজ এন্টারপ্রাইজের সঙ্গে বালু ভরাট নিয়ে প্রতারণা পূর্বক বিশ্বাস ভঙ্গ করার অভিযোগে ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে এ মামলাটি করা হয়। আদালত মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য পল্লবী থানাকে নির্দেশ দেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান তাজ এন্টারপ্রাইজ গ্রামীণ টেলিকম ট্রাস্টের আশুলিয়ার জিরাবোর ঘোষবাগ এলাকায় বালু ভরাটের কাজ করেন। বালু ভরাট বাবদ গ্রামীণ টেলিকম ট্রাস্টের কাছে তার পাওনা ৬ কোটি ৮৫ লাখ ৮৯ হাজার ৪ টাকা। তাজ এন্টারপ্রাইজের মালিক বাহাদুল ইসলাম বালু ভরাটের টাকা দেয়ার জন্য আসামিদের বলেন। তারা টাকা দিতে গড়িমসি করতে থাকেন। সর্বশেষ ১১ ফেব্রুয়ারি তাদের মধ্যে একটি সমঝোতা হয় টাকা দিবেন বলে। বাদী সমঝোতা অনুযায়ী তার টাকা চাইলে আসামিরা হুমকি প্রদান করেন।

Be the first to comment on "বালু ভরাট নিয়ে প্রতারণা : ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে মামলা"

Leave a comment

Your email address will not be published.




18 + five =