ছাত্রলীগ নেতা খুনে চবি’র ছাত্র আটক

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : নিজ বাসার সামনে পিটিয়ে ও কুপিয়ে নৃশংসভাবে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্র লীগের সহ-সম্পাদক সুদীপ্ত বিশ্বাসকে খুনের ঘটনায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) এক ছাত্রকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার ভোরে নগরী থেকে রুবেল দে (২৪) নামে ওই যুবককে আটক করা হয়েছে। রুবেল চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি স্নাতক শ্রেণীর ছাত্র।

সদরঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নেজাম উদ্দিন জানিয়েছেন, হত্যাকাণ্ডের সময় ঘটনাস্থলে রুবেল থাকার তথ্যপ্রমাণ আমাদের হাতে আছে। তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়েছে। বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হবে।

ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িত রুবেল নগরীর লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম মাসুমের অনুসারী হিসেবে পরিচিত। এই নিয়ে চাঞ্চল্যকর সুদীপ্ত হত্যা মামলায় চার আসামিকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ।

গত বছরের ৬ অক্টোবর সকালে নগরীর সদরঘাট থানার দক্ষিণ নালাপাড়ার বাসার সামনে খুন হন সুদীপ্ত বিশ্বাস। এ ঘটনায় অজ্ঞাত পরিচয় সাত-আটজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন সুদীপ্তের বাবা মেঘনাথ বিশ্বাস বাবুল।

হত্যাকাণ্ডের সাতদিন পর ১৩ অক্টোবর গ্রেফতার হয় মোক্তার হোসেন নামে একজন। ১৮ অক্টোবর আদালতে খুনের দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দেয় মোক্তার। জবানবন্দিতে মোক্তার জানায়, মাঈনউদ্দিন হানিফ ও আইনুল কাদের নিপুর নেতৃত্বে মোরশেদ আলম বাবলু, নিয়াজ মোরশেদ নিপু, চশমা রুবেল, বাপ্পি, খায়ের, বাবু, রুবেল দাশ, শামিম, জাহেদ, এম এইচ মুরাদ ও কাজী সালাউদ্দিন লাভলুসহ কমপক্ষে ৩০ জন হত্যাকাণ্ডে অংশ নিয়েছিল।

সাতটি সিএনজি অটোরিকশা ও তিনটি মোটরসাইকেলে করে খুনিরা সদরঘাট এলাকায় যায়। চারদিন পর ১৭ অক্টোবর রাতে আমির হোসেন ওরফে বাবু ও খাইরুল নুর ইসলাম ওরফে খায়ের নামে দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়।

২২ অক্টোবর রাতে ফয়সাল আহমেদ পাপ্পু নামে আরেক সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার তথ্যানুযায়ী হত্যাকাণ্ডে ব্যবহার হওয়া লোহার রডও উদ্ধার করা হয়।

Be the first to comment on "ছাত্রলীগ নেতা খুনে চবি’র ছাত্র আটক"

Leave a comment

Your email address will not be published.




2 × one =