মান্দারিনকে সরকারি ভাষার স্বীকৃতি দিচ্ছে পাকিস্তান!

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : চীনা ভাষা মান্দারিনকে সরকারি ভাষার স্বীকৃতি দেয়ার প্রস্তাব উঠেছে পাকিস্তানের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ সিনেটে। কূটনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বেইজিংয়ের সঙ্গে ইসলামাবাদের কূটনৈতিক সম্পর্ক আরো মজবুত করতে মান্দারিনকে সরকারি ভাষার স্বীকৃতি দিচ্ছে পাকিস্তান।

মান্দারিনকে সরকারি ভাষা হিসাবে কার্যকর করা হলে চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করডির (সিপেক) প্রকল্পে দু’দেশের সংযোগ আরো সহজ হবে। পাকস্তানের সাধারণ মানুষের সঙ্গে যোগাযোগে সুবিধা হবে চীনের। এ উদ্দেশ্যেই চীনের মান্দারিনকে সরকারি ভাষার স্বীকৃতি দিতে চলছে পাকিস্তান।

তবে এ মুহূর্তে পাকিস্তানে মান্দারিন ভাষার কোনো অস্তিত্ব নেই। পাঞ্জাবি, পাস্তুসহ একাধিক ভাষার পাকিস্তানে বহুল প্রচলন রয়েছে দেশটিতে। পাঞ্জাব প্রদেশে প্রায় ৯০ শতাংশ মানুষ পাঞ্জাবি ভাষায় কথা বলেন।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডন বলছে, চীনা ভাষা শিখতে পাকিস্তানিদের আগ্রহ রয়েছে। মান্দারিন শিখলে ব্যাপক পরিমাণে চাকরি সুযোগ রয়েছে বলে মনে করেন তারা।

পাকিস্তান সরকারের এই পদক্ষেপে বিতর্ক শুরু হয়েছে দেশটিতে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত পাক রাষ্ট্রদূত হুসেন হাক্কানি বলেছেন, গত ৭০ বছরে মাতৃভাষাকে প্রতারিত করে ইংরেজি, উর্দু, আরবি এবং মান্দারিনকে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে।

Be the first to comment on "মান্দারিনকে সরকারি ভাষার স্বীকৃতি দিচ্ছে পাকিস্তান!"

Leave a comment

Your email address will not be published.




8 + 15 =