ত্রিপুরায় ভোট শেষ, গণনা ৩ মার্চ

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ত্রিপুরায় ভোট নেওয়া শেষ। রাজ্যের ৫৯টি আসনেরই বৈদ্যুতিক ভোটযন্ত্র ইভিএম এখন বিভিন্ন স্ট্রং রুমে। ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তার মধ্যে আগামী ৩ মার্চ সকাল পর্যন্ত সেখানেই থাকবে। ওই দিন স্ট্রং রুম ভেঙে ইভিএম বের করে গণনা হবে।

 

যেসব কক্ষে ইভিএম যন্ত্র রাখা, সেগুলোর বাইরে দিনরাত আধা সেনা জওয়ানেরা সতর্ক পাহারায় মোতায়েন। রাজ্য পুলিশেরও ভেতরে ঢোকার অধিকার নেই। উর্দি পরা পোশাক বা সাদাপোশাকে পুলিশ ব্যস্ত। মূল ফটক দিয়ে ভেতরে ঢুকলে আরও এক দফা নিরাপত্তাবলয়। কংক্রিটের ঘরগুলোর সামনে স্বয়ংক্রিয় রাইফেল রাতে আধা সেনাবাহিনীর জওয়ানেরা।

 

দরজা শক্তপোক্তভাবে বন্ধ করা। ভেতরে সারি দিয়ে রাখা ইভিএম। বাইরে তাই এত নজরদারি। প্রতিটি ইভিএমেই আছে রাজনৈতিক দলগুলোর সিলমোহর। এমনকি দরজাতেও। তবু প্রতিটি কেন্দ্রের দুজন করে রাজনৈতিক প্রতিনিধি রয়েছেন ইভিএম প্রহরায়।

 

এভাবেই চলবে ৩ মার্চ পর্যন্ত। সেদিন ভাঙা হবে দরজার সিল। বাইরে আসবে ইভিএম। আরও একপ্রস্থ নিরাপত্তা বন্দোবস্তের মধ্যেই ইভিএম খোলা হবে।

 

নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ও নির্বাচন কমিশনের নিরপেক্ষতার আশ্বাসই আপাতত যুযুধান সব শিবিরেরই ভরসা। ত্রিপুরায় এ রকম ২০টি গণনাকেন্দ্র রয়েছে। সব কটিরই নিরাপত্তাব্যবস্থা একই রকম নিশ্ছিদ্র।

 

দুর্যোগ মোকাবিলার বন্দোবস্তও পাকা। দমকলের ইঞ্জিন থাকছে দিনরাত। থাকছে বিকল্প ব্যবস্থাসহ ২৪ ঘণ্টা বিদ্যুৎ সরবরাহের বন্দোবস্তও।

 

দীর্ঘদিন ভোট প্রচারে ক্লান্ত প্রার্থীরা যাতে ইভিএম জমা রেখে নিশ্চিন্তে ঘুমোতে পারেন, তার জন্য অতন্দ্রপ্রহরায় কোনো খামতি রাখেনি ভারতীয় নির্বাচন কমিশন। তাই ভোট গ্রহণের প্রায় এক পক্ষকাল পরে গণনা হলেও আপত্তি করেনি কোনো পক্ষ।

Be the first to comment on "ত্রিপুরায় ভোট শেষ, গণনা ৩ মার্চ"

Leave a comment

Your email address will not be published.




2 × 2 =