বই মেলায় অংশুমানের ‘মাটির মৃত মগজ’

Print Friendly, PDF & Email

নিজস্ব প্রতিবেদক : ‘মাটির মৃত মগজ’ কবি অংশুমানের প্রথম কাব্যগ্রন্থ। বইয়ে মোট কবিতার সংখ্যা ৩৯ টি। বইয়ের প্রথম কবিতা হে ফুসফুস। কবিতার প্রথম চরণ ‘হে ফুসফুস হে লাল পিপড়া; আমি আর পারছি না! আমাকে আর কত শত কোটি বছর অভিশপ্ত জীবন বয়ে বেড়াতে হবে?। এর পরের কবিতা ‘ আমি মানূষের কথা বলতে আসিনি’। কবিতার একটি লাইন এমন ‘আমি মানূষের কথা বলতে আসিনি, এসেছি শিশিরমাখা শুঁয়োপোকা ঘুঘরোল পোকার রক্তলাল ফুসফুসের কথা’। কবি তার সফেদ ‘কফিন’ কবিতায় বলেছেন ‘কে ডাকে আমাই? হৃৎপিণ্ড শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ কোকিল হয়ে যায়।’ প্রতিটি কবিতায় উঠে এসেছে জন্ম, মৃত্যু, প্রেম, প্রকৃতির অন্তরালের কথা। আমি কার কোলে দু:খ ভুলি কবিতায় কবি বলেছেন, ‘পাখির ডিমের কোলে সূর্য তার দুঃখ ভোলে, আমি কার কোলে দুঃখ ভুলি।’ মাটির মৃত মগজ কবিতার একটা লাইন এমন, ‘নীল সূর্য উপুড় হয়ে বসে আছে আমার ফুসফুসে, ডুকরে ডুকরে কাঁদছে; আমার চিরচেনা হাজার বছর ধরে পথ চলা, মা হারা সাদা বিড়াল ছানার মতো।’ বেশিরভাগ কবিতায় কবির মৃত্যু ভাবনার চূড়ান্ত বহি:প্রকাশ ঘটেছে। মৃত্যু আমার কবিতায় কবি বলেছেন, ‘মৃত্যু আমার অজয়ের হাসি, ঘুমন্ত রাজ বিড়ালের সঙ্গে মিতালি, মৃত্যু আমার নির্বাক প্রেম, প্রাণের গন্ধ মেশানো প্রথম স্মৃতি।’ লেখক অংশুমান ঢাকায় সাংবাদিকতা করছেন এক যুগেরও বেশি সময় ধরে।

Be the first to comment on "বই মেলায় অংশুমানের ‘মাটির মৃত মগজ’"

Leave a comment

Your email address will not be published.




10 − 7 =