আগামীকাল ইতালি যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : জাতিসংঘের কৃষি উন্নয়ন তহবিলের (আইএফএডি) গভর্নিং কাউন্সিলের সভায় অংশগ্রহণ ও ভ্যাটিকান সফরের উদ্দেশ্যে ইতালি যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রবিবার সকালে প্রধানমন্ত্রী চার দিনের সরকারি সফরে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে রোম রওনা হবেন বলে বলে তার প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানিয়েছেন।

আইএফএডির প্রেসিডেন্ট গিলবার্ট এফ হংবো এবং পোপ ফ্রান্সিসের আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রীর এ সফর হচ্ছে বলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী জানান।

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, “গঠনমূলক পরিবর্তনের ক্ষেত্রে প্রশংসনীয় ভূমিকার ফলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে একজন ‘ইন্টারন্যাশনাল লিডার ফর চেইঞ্জ’ হিসেবে অভিহিত হয়েছেন। পল্লী উন্নয়ন এবং নারী ও পুরুষের সমতা আনয়নে তার সাফল্য ও অবদান আজ সর্বত্র স্বীকৃত।

আইএফএডির সভায় প্রধানমন্ত্রীর অংশগ্রহণ সদস্য রাষ্ট্রগুলোকে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে গঠনমূলক আলোচনায় অংশগ্রহণ করতে অনুপ্রাণিত করবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। এরফলে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল হবে।

ঢাকা থেকে রওনা হয়ে দুবাইয়ে যাত্রাবিরতির পর রবিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টায় রোমের ফিউমিসিনো বিমান বন্দরে পৌঁছার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর।

ইতালিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান সিকদার বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানাবেন।

প্রধানমন্ত্রী ১২ ফেব্রুয়ারি ভ্যাটিক্যান সফর করবেন। সেখানে তিনি পোপ ফ্রান্সিস ও সেক্রেটারি স্টেট অব ভ্যাটিক্যান সিটি কার্ডিনাল পেইটরো পারোলাইনের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে পোপ ফ্রান্সিস গত ৩১ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর বাংলাদেশ সফর করে গিয়েছিলেন।

মাহমুদ আলী বলেন, “মহামহিম পোপের বাংলাদেশ সফরের পরপরই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভ্যাটিকান সফর দুদেশের মধ্যে বিদ্যমান সম্পর্ককে আরও দৃঢ়তর করবে।

প্রধানমন্ত্রীর ভ্যাটিকান সফরের ফলে খ্রিস্টান দেশসমূহে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বলতর হবে এবং সেসব দেশে বসবাসরত বাংলাদেশিদের জন্য আরও অনুকূল পরিবেশ তৈরি হবে।

শেখ হাসিনা ১৩ ফেব্রুয়ারি সকালে রোমে আইএফএডির সদর দপ্তরে গভর্নিং কাউন্সিলের ৪১তম অধিবেশনে যোগ দেবেন। উদ্বোধনী অধিবেশনে তিনি মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন।

এবারের গভর্নিং কাউন্সিলের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে ‘ফ্রম ফ্রাগিলিটি টু লং টার্ম রেজিলেন্স: ইনভেস্টিং ইন সাসটেইনেবল রুরাল ইকোনমিকস’।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী তার মূল প্রবন্ধে কৃষি ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অর্জন ও সাফল্য, গ্রামীণ যুব শক্তির উন্নয়নে সরকারের গৃহীত নানা পদক্ষেপ, দারিদ্র ও প্রান্তিক জন গোষ্ঠীর জীবন-মান উন্নয়নে বিনিয়োগের গুরুত্ব এবং পল্লী জনগনের ক্ষমতায়নে স্থানীয় সরকারের ভূমিকার বিষয়েও আলোকপাত করবেন।

১৯৭৭ সালে জাতিসংঘের একটি বিশেষায়িত আর্থিক সংস্থা হিসেবে আইএফএডি প্রতিষ্ঠিত হয়। সংস্থাটি মূলত কৃষিক্ষেত্রে উন্নয়নের মাধ্যমে দারিদ্র্য বিমোচন বিশেষতঃ উন্নয়নশীল দেশগুলোতে গ্রামীণ ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সামগ্রিক জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে।

মাহমুদ আলী জানান, বিগত প্রায় ৩০ বছরে আইএফএডি বাংলাদেশের পল্লী জনগণের ক্ষমতায়ন, দারিদ্র্য বিমোচন এবং খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা উন্নয়নে সরকারের সাথে অংশীদারিত্বমূলক সহযোগিতার ভিত্তিতে নানামুখী প্রকল্প ও কার্যক্রম গ্রহণ করে আসছে।

প্রতিষ্ঠার পর আইএফএডির প্রথম প্রকল্পটি ছিল বাংলাদেশে, যা ১৯৭৮ সালে নেওয়া হয়। সংস্থাটি এ পর্যন্ত বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রকল্প ও কর্মসূচীতে প্রায় ৭৮২ মিলিয়ন ডলারের অনুদান এবং স্বল্পসুদ ও সহজশর্তে ঋণ দিয়েছে। এরফলে দেশের ৪ কোটিরও বেশি জনগোষ্ঠী উপকৃত হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আশা করছেন, আসন্ন আইএফএডির গভর্নিং কাউন্সিল সভায় প্রধানমন্ত্রীর অংশগ্রহণ এবং মূল বক্তব্য উপস্থাপনের মধ্য দিয়ে সংস্থাটির সঙ্গে বাংলাদেশের অংশীদারিত্বমূলক সম্পর্ক আরও মজবুত হবে।”

সম্মেলনে আইএফএডির প্রেসিডেন্টের আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী মধ্যাহ্নভোজে যোগ দেবেন।

১৩ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় শেখ হাসিনা রোমে প্রবাসী বাংলাদেশিদের এক সংবর্ধনা সভায় যোগ দেবেন।

১৫ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলীসহ বিভিন্ন কর্মকর্তা প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে থাকবেন।

Be the first to comment on "আগামীকাল ইতালি যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী"

Leave a comment

Your email address will not be published.




thirteen + 9 =