যক্ষ্মায় বছরে ৬৬ হাজার মানুষের মৃত্যু

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, যক্ষ্মা বাংলাদেশে অন্যতম প্রধান জনস্বাস্থ্য সমস্যা। প্রতিবছর তিন লাখ ষাট হাজারের বেশি লোক যক্ষ্মায় আক্রান্ত হয়। এর মধ্যে শতকরা পঞ্চাশ ভাগ মানুষ ছড়ানো ফুসফুসের যক্ষ্মা রোগী। প্রতিবছর প্রায় ৬৬ হাজার লোক এ রোগের কারণে মারা যায়।

সোমবার জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি বেগম লুৎফা তাহেরের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

মন্ত্রী বলেন, নির্দিষ্ট সরকারি-বেসরকারি স্বাস্থ্যকর্মীর মাধ্যমে যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। সরকারি-বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, জেলা সদর হাসাপতাল, পুলিশ ও মিলিটারি হাসপাতাল, জেলখানা ও কর্মস্থলে বাংলাদেশ সরকার এবং সংশ্লিষ্ট বেসরকারি সংস্থার সমন্বিত কার্যক্রমের মাধ্যমে জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি বাস্তবায়িত হচ্ছে।

দেশে এইচআইভি আক্রান্ত ৪৭২১ জন

নাসিম বলেন, ১৯৮৯ সালে দেশে প্রথম এইচআইভি শনাক্ত হয়। ২০১৬ সালের অক্টোবর পর্যন্ত সরকারি হিসেবে দেশে মোট এইচআইভি আক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজার ৭২১। এর মধ্যে মারা গেছে ৭৯৯ জন। আর জীবিত আছেন ৩৯২২ জন।

তিনি বলেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অনুসারে ২০৩০ সাল নাগাদ দেশকে মারণব্যাধি এইচআইভি/এইডস মুক্ত করতে সরকার অঙ্গীকারাবদ্ধ। এ রোগে সংক্রমের হার মাত্র দশমিক শূন্য এক শতাংশ বলে জানান মন্ত্রী।

Be the first to comment on "যক্ষ্মায় বছরে ৬৬ হাজার মানুষের মৃত্যু"

Leave a comment

Your email address will not be published.




17 − seven =