স্ত্রী হত্যায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ডাদেশ

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : রাজধানীর দক্ষিণখান থানার ফায়দাবাদে স্ত্রী লিজাকে বটি দিয়ে গলা কেটে হত্যায় স্বামী ইমন হোসেনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল।

বৃহস্পতিবার ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৪ এর বিচারক আবদুর রহমান সরদার আসামির অনুপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। ইমন হোসেন দিনাজপুর জেলার বিরল থানাধীন জগৎপুর মহাজনপাড়ার হাবিবুর রহমান বাবুর ছেলে।

 

বিচারক রায়ের অবজারবেশনে বলেন, বর্তমান সমাজে স্বামী দ্বারা স্ত্রী হত্যার ঘটনা অনেক ঘটছে। সমাজে আর কোনো স্বামী যেন স্ত্রী হত্যা করতে সাহস না পায় তাই আসামি ইমনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেয়া হলো।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১২ সালের ২২ সেপ্টেম্বর ইমন স্ত্রী লিজাকে বটি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করেন। হত্যার পরে ঘরে তালা দিয়ে পালিয়ে যান। ওই বছর ২৪ সেপ্টেম্বর পুলিশ বাসার দরজা ভেঙে লিজার মরদেহ উদ্ধার করে।

ওই ঘটনায় দক্ষিণখান থানার এসআই শাহজাহান ওই বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর ইমনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারের পর ইমন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

তিনি জবানবন্দিতে বলেন,‘তারা স্বামী-স্ত্রী তিন মাস আগে দক্ষিণখান থানার ফায়দাবাদে একটি ভাড়া বাসায় উঠেন। তার সন্দেহ স্ত্রী পরকীয়া করে। পরকীয়ার জের ধরে তার স্ত্রী লিজাকে তিনি হত্যা করেন।’

২০১৪ সালের ২৯ এপ্রিল দক্ষিণখান থানার উপ-পরিদর্শক মোস্তাফির রহমান আসামি ইমনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ২০১৪ সালের ২২ জুন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। মামলায় বিভিন্ন সময় ১৬ জন সাক্ষী সাক্ষ্য দেন।

Be the first to comment on "স্ত্রী হত্যায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ডাদেশ"

Leave a comment

Your email address will not be published.




1 × 4 =