পদত্যাগ করলেন ব্রিটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : ব্রিটেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী স্যার মাইকেল ফ্যালন তার ব্যক্তিগত আচরণের কারণে পদত্যাগ করেছেন।

তিনি এমন এক সময়ে পদত্যাগ করলেন, যখন ব্রিটেনের বেশ কিছু সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানীর অভিযোগ উঠেছে।

মি. ফ্যালন বলেছেন তাঁর আচরণ যে মানের হওয়ার কথা, সেটি হয়তো সে মানের ছিল না।

মঙ্গলবার তিনি স্বীকার করেছেন যে ১৫ বছর আগে তিনি সাংবাদিক ও রেডিও উপস্থাপিকা জুলিয়া হার্টলি-ব্রুয়ারের হাঁটু অশোভনভাবে স্পর্শ করেছিলেন।

সে আচরণের জন্য তিনি ক্ষমা চেয়েছেন।

মি: ফ্যালন বিবিসিকে বলেছেন, ” ১৫ কিংবা ১০ বছর আগে যেটি গ্রহণযোগ্য ছিল, বর্তমানে সেটি মোটেও গ্রহণযোগ্য নয়।”

ব্রিটেনের পার্লামেন্টে বেশ কয়েকজন এমপি’র বিরুদ্ধে সম্প্রতি যৌন হয়রানীর অভিযোগ প্রকাশ হওয়ার প্রেক্ষাপটে মি: ফ্যালকন হচ্ছেন প্রথম রাজনীতিবিদ যিনি পদত্যাগ করলেন।

মি: ফ্যালনের পদত্যাগের সাথে নতুন কোন অভিযোগের সম্পর্ক নেই বলে মনে করছে বিবিসি। তবে বিষয়টি নিয়ে ডাউনিং স্ট্রিট কোন মন্তব্য করেনি।

মি: ফ্যালন বলেছেন, ব্রিটেনের সামরিক বাহিনী যে মানের আচরণ আশা করে তাঁর আচরণ সে রকম ছিলনা।

মি: ফ্যালন মন্ত্রীপরিষদের একজন সদস্য হিসেবে তাঁর ভূমিকাকে যে গুরুত্বের সাথে দেখেছেন সেটির প্রশংসা করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে।

” অতীতে আমার কিছু আচরণসহ সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকজন এমপি’র বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। এসব অভিযোগের অনেকগুলোই মিথ্যা। কিন্তু আমি স্বীকার করছি যে অতীতে আমার আচরণ সর্বোচ্চ মানের তুলনায় ঘাটতি ছিল,” এক বিবৃতিতে বলেন মি: ফ্যালন।

বিবিসির অনুষ্ঠানে মি: ফ্যালনকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল যে তিনি ক্ষমা চাইবেন কিনা?

উত্তরে মি: ফ্যালকন বলেন, ” আমার মনে হয় আমরা এখন সবাই অতীতের দিকে ফিরে তাকিয়েছি।সেখানে এমন কিছু ঘটনা ঘটেছে যার জন্য আপনার অনুতাপ হতে পারে, যেটা ভিন্নভাবে করা যেত।”

গত সাড়ে তিন বছর ধরে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনের বিষয়টিকে সম্মানের ছিল বলে তিনি মন্তব্য করেন।

সূত্র: বিবিসি।

 

Be the first to comment on "পদত্যাগ করলেন ব্রিটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী"

Leave a comment

Your email address will not be published.




five × five =