ইরান ইস্যু, যুদ্ধের ঝুঁকি বাড়াচ্ছেন ট্রাম্প : জার্মানি

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : ইরান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যুদ্ধের ঝুঁকি বাড়াচ্ছেন বলে হুঁশিয়ার করেছে জার্মানি।

জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র যদি ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি বাতিল করে নতুন অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে, তাহলে এর ফল হিসেবে ইরান পরমাণু অস্ত্র তৈরি করবে এবং ইউরোপের নাকের ডগায় যুদ্ধের ঝুঁকি বাড়বে।

শুক্রবার ট্রাম্প হুমকি দেন, ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তি ইরান মেনে চলছে- এমন কোনো স্বীকৃতি দেবেন না তিনি। যদিও আন্তর্জাতিক আনবিক শক্তি সংস্থা (আইএইএ) জানিয়েছে, চুক্তির শর্ত মেনে চলছে দেশটি। ইরানের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস ও সহিংসতা ছড়ানোর অভিযোগ এনে পরমাণু চুক্তি বাতিলের হুমকি দেন তিনি।

জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিগমার গ্যাব্রিয়েল শনিবার ডয়চেল্যান্ডফাঙ্ক রেডিওকে বলেছেন, ‘কঠিন ও বিপজ্জনক’ ইঙ্গিত দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং একই সময়ে তারা উত্তর কোরিয়ার পরমাণু ইস্যুতে সংকট মোকাবিলা করছে।

গ্যাব্রিয়েল বলেন, ‘আমার উদ্বেগ হলো- ইরানে কী হচ্ছে বা ইরানের সঙ্গে কী হচ্ছে, তা যুক্তরাষ্ট্রের পরিপ্রেক্ষিতে ইরানি ইস্যু হয়ে থাকবে না। কিন্তু ইরান যদি নিজেই পরমাণু অস্ত্র বানিয়ে ফেলে, তাহলে এ ধরনের চুক্তি নস্যাৎ হয়ে যাবে। তিনি বলেন, তখন আমাদের সন্তান ও নাতিনাতনিরা একটি বিপজ্জনক পৃথিবীতে বেড়ে উঠবে।

তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন, যুক্তরাষ্ট্র যদি পরমাণু চুক্তি বাতিল করে বা পুনরায় নিষেধাজ্ঞা চাপায়, তাহলে এটি ইরানের কট্টরপন্থিদের পশ্চিমাবিরোধিতার সুযোগ করে দেবে। ইরানি কট্টনপন্থিরা পশ্চিমা বিশ্বের সঙ্গে কোনো সমঝোতা করতে চায় না।

জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, এভাবে তারা পরমাণু অস্ত্র তৈরির পথে এগিয়ে যাবে। কিন্তু ইসরায়েল তা সহ্য করবে না। তখন আমরা পেছনে ফিরে যাব, সেই ১০/১২ বছর আগের অবস্থায়, যখন তুলনামূলকভাবে ইউরোপের পাশেই যুদ্ধের ঝুঁকি বিরাজ করতো।

অভ্যন্তরীণ নীতির কারণে মিত্রদের এবং নিজেদের লোকজনের নিরাপত্তা বিপদে না ফেলার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন গ্যাব্রিয়েল। ট্রাম্পের পূর্বসূরি বারাক ওবামার প্রশংসা করেন তিনি। ইরানকে পরমাণু অস্ত্র বানানো থেকে বিরত রাখতে তাদের সঙ্গে চুক্তিতে আসেন ওবামা প্রশাসন। এ চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী অন্য দেশগুলো হলো- যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, রাশিয়া, চীন ও জার্মানি। এতে মধ্যস্থতা করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

সূত্র : রয়টার্স অনলাইন।

Be the first to comment on "ইরান ইস্যু, যুদ্ধের ঝুঁকি বাড়াচ্ছেন ট্রাম্প : জার্মানি"

Leave a comment

Your email address will not be published.




eight + nine =