বেসরকারি চাকরিজীবীদের রিটার্ন বাধ্যতামূলক

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : বেসরকারি চাকরিজীবীদের রিটার্ন জমা দেয়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। নিয়মানুসারে বেসরকারি চাকরিজীবীদের কর যোগ্য আয় থাকুক বা না থাকুক; তাদের রিটার্ন জমা দিতে হবে। চলতি বছর থেকে এ নিয়ম করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। একই সঙ্গে তারা সঠিকভাবে রিটার্ন জমা দিয়েছেন কি না সেটিও খতিয়ে দেখবে এনবিআর।

জানা গেছে, বেসরকারি যেকোনো প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ব্যক্তির কর সংক্রান্ত তথ্য যাচাই করা হবে। এ ক্ষেত্রে করদাতা যে প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন সেই প্রতিষ্ঠানের ডিসেম্বর মাসের বেতন বাবদ খরচের হিসাব-নিকাশ যাচাই-বাছাই করবেন কর কর্মকর্তারা।

গত অর্থবছরে ব্যবসা বা পেশার নির্বাহী বা ব্যবস্থাপনা পদে নিয়োজিত বেতনভোগী কর্মীর কর শনাক্তকরণ নম্বর (টিআইএন) নেয়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছিল। এর ফলে গতবার প্রায় সাত লাখের বেশি এমন বেসরকারি চাকরিজীবী টিআইএন নিয়েছিলেন। এ বছর তাদের রিটার্ন দেয়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তাই এবার অনেকেই প্রথমবারের মতো আয়কর বিবরণী জমা দেবেন।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এখনই তাদের প্রস্তুতি নিতে হবে। সংগ্রহ করতে হবে ব্যাংক হিসাব, বিনিয়োগের দলিল, যাতায়াত, বাড়িভাড়াসহ বিভিন্ন দলিলাদির অনুলিপি। ২০১৬ সালের জুলাই থেকে ২০১৭ সালের জুন মাসের মধ্যে যত আয়-ব্যয় করেছেন, সেই হিসাব আয়কর বিবরণীতে থাকতে হবে এবং রিটার্ন জমা দিতে হবে আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে।

অন্যদিকে, টিআইএন সনদ না নিলে কিংবা রিটার্ন জমা না দিলে প্রতিষ্ঠান যে বেতন-ভাতা দিয়েছে, তা নিজেদের খরচ হিসেবে দেখাতে পারবেন না উক্ত করদাতার।

Be the first to comment on "বেসরকারি চাকরিজীবীদের রিটার্ন বাধ্যতামূলক"

Leave a comment

Your email address will not be published.




sixteen − 16 =