জজ কোর্টের সামনে নারীর সন্তান প্রসব

Print Friendly, PDF & Email

জেলা প্রতিনিধি : পঞ্চগড়ের জেলা শহরের জজ কোর্টের সামনের মহাসড়কে রনজিনা খাতুন (৪০) নামের এক মানসিক ভারসাম্যহীন নারী সন্তান প্রসব করেছেন। রোববার (২২ জানুয়ারি) বিকেলে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সামনে পঞ্চগড়-তেঁতুলিয়া মহাসড়কের ধারে এ ঘটনা ঘটে।

পরে স্থানীয় ও পুলিশের সহায়তায় ঘটনাস্থল হতে উদ্ধার করে তাদেরকে জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করে। মানসিক ভারসাম্যহীন ওই নারী জেলার সদরের ধাক্কামারা ইউপির লাঠুয়াপাড়ার খতিবুল ইসলামের স্ত্রী। তার আরও দুটি সন্তান রয়েছে। তাকে সরকার থেকে জেলার মাহানপাড়ায় আশ্রায়ণের ঘর দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তিনি সেখানে না থেকে রাস্তাঘাটে থাকেন।

শিশুটি পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের শেখ রাসেল স্ক্যানুতে (নবজাতকের বিশেষায়িত সেবাকেন্দ্র) চিকিৎসাধীন রয়েছে। ভারসাম্যহীন মাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তার এক আত্বীয়ের বাড়িতে নেওয়া হয়েছে। সন্তান প্রসবের খবরটি ছড়িয়ে পড়লে হাসপাতালে নবজাতককে দেখতে প্রচুর লোকজনের ভিড় জমে।

নিকট আত্মীয় সফিকুল ইসলাম জানান, সে আমার ভাগ্নী। তার আগের দুটি বাচ্চা রয়েছে। বড় মেয়েটাকে লালন-পালন করে জেলার ইসলামবাগে বিয়ে দিয়েছি। কয়েকদিন আগে তার স্বামী মারা গেছে। এখন মা-মেয়ে আমার কাছে থাকে।

সাবিনা বেগম, লাইলী বেগম ও মজিদা বেগম নামের তিন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, আমরা বোদা উপজেলা থেকে একটা কাজে এসেছিলাম। জেলা জজ কোর্টের সামনে প্রাঙ্গণে এসে দেখি ওই নারী ফুটফুটে কন্যা সন্তান প্রসব করেছে। পরে আমরা বাজার থেকে কম্বল, তোয়ালেসহ কিছু কাপড় কিনে এনে পরিয়ে দেই ও ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে পুলিশকে অবগত করি। মা-শিশু ভালো থাকুক, শিশুটি যেন তার অধিকার পায় সে ব্যবস্থা করতে অনুরোধ করছি।

সদর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ভবেশ চন্দ্র পাল জানান, আমাদের জাতীয় জরুরি সেবা কেন্দ্রে খবর আসে, জেলা জজ কোর্টের সামনে রাস্তার পাশে একজন ভারসাম্যহীন মহিলা বাচ্চা প্রসব করেছেন। সেই তথ্যের ভিত্তিতে আমরা সেখানে আসি। সেখানকার স্থানীয়দের সহায়তায় নবজাতকসহ মাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করিয়েছি। আর ভারসাম্যহীন ওই নারীকে আমরা হাসপাতালে এনে জরুরি বিভাগে চিকিৎসা করাই। মা ও শিশু দুজনই ভালো আছে, সুস্থ আছে। তাদের পরিচয় মিলেছে। তারা ধাক্কামারা ইউনিয়নের লাঠুয়াপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। তার স্বামী ও সন্তান রয়েছে। সে বাড়িতে থাকে না, এখানে সেখানে ঘুরে বেড়ায়।

পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রাকিবুল হাসান জানান, নবজাতকসহ ওই নারী সুস্থ রয়েছে। কোনো সমস্যা নেই। শিশুটিকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হচ্ছে।

জেলা প্রশাসনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ফজলে রাব্বী রাতে বলেন, আমি বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে ছুটে গিয়েছি। মা-শিশুকে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বর্তমানে তারা ভালো আছে। তাদের বিষয়ে যাবতীয় খোঁজখবর রাখা হচ্ছে।