এবার ১২ হাজার কর্মী ছাঁটাই করছে অ্যালফাবেট

Print Friendly, PDF & Email

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক : গুগলের মূল প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেট ইনকরপোরেটেড একসঙ্গে প্রায় ১২ হাজার কর্মী ছাঁটাই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, যা তাদের মোট কর্মীর ছয় শতাংশ। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, কঠিন অর্থনৈতিক বাস্তবতার সম্মুখীন হওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে তারা।

শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) এক বিবৃতিতে অ্যালফাবেট ইন্টারন্যাশনালের শীর্ষ নির্বাহী সুন্দর পিচাই এসব তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, বর্তমানে আমাদের একটি কঠিন অর্থনৈতিক পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে। তাই একপ্রকার বাধ্য হয়েই আমাদের কর্মী ছাঁটাইয়ের মতো কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। আমি এ সিদ্ধান্তের পুরোটা দায় স্বীকার করে নিচ্ছি।

কিছুদিন আগে অ্যালফাবেটের প্রতিদ্বন্দ্বী কোম্পানি মাইক্রোসফট করপোরেশন ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই করে। তাছাড়া অ্যামজন, ফেসবুকের মূল কোম্পানি মেটা ও টুইটারসহ বড় বড় সব তথ্য-প্রযুক্তিভিত্তিক প্রতিষ্ঠানগুলো অর্থনৈতিক সংকটের মুখে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক কর্মী ছাঁটাই করে।

জানা যায়, গত এক বছরে অ্যালফাবেটের শেয়ারমূল্য ৩০ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে, যা প্রযুক্তিশিল্পে ২৪ শতাংশ মন্দার প্রতিনিধিত্ব করছে।

অ্যালফাবেট দীর্ঘকাল ধরে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তার জগতে শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে, কিন্তু সম্প্রতি এটি মাইক্রোসফটের প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হচ্ছে। অন্যদিকে বিজ্ঞাপন পাওয়ার হার কমে যাওয়ায় ও ভোক্তারা খরচ কমিয়ে দেওয়ার কারণে প্রতিষ্ঠানটি বাজেট কমানোর চাপ অনুভব করছে।

এভারকোর আইএসআইএস বিশ্লেষক মার্ক মাহানি বলেন, অ্যালফাবেটের বিশাল কর্মীসংখ্যা ২০২৩ অর্থবছরে প্রতিষ্ঠানটির জন্য বড় অর্থনৈতিক ঝুঁকি তৈরি করেছে। অন্যদিকে, বার্নস্টেইনের বিশ্লেষক মার্ক শ্মুলিক বলেন, কর্মী ছাঁটাইয়ের মাধ্যমে অ্যালফাবেট ২৫০ কোটি ডলার থেকে ৩০০ কোটি ডলার খরচ কমাতে সাহায্য করবে।

গত কয়েক মাসে যুক্তরাষ্ট্রের ৭টি বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান তাদের মোট ৫৯ হাজার কর্মী ছাঁটাই করেছে। এগুলো মধ্যে অ্যামাজন ছাঁটাই করছে ১৮ হাজার, মেটা ১১ হাজার, মাইক্রোসফট ১০ হাজার, সেলসফোর্স ৮ হাজার, এইচপি ৬ হাজার, টুইটার ৩৭০০ ও সিগেট ৩ হাজার কর্মী ছাঁটাই করে।

সূত্র: রয়টার্স