চীনে আইফোন কারখানায় শ্রমিক-পুলিশের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ

Print Friendly, PDF & Email

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : চীনের ঝেংঝৌ প্রদেশে অবস্থিত ফক্সকনের আইফোন কারখানার শ্রমিক এবং পুলিশের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। দেশটির জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম উইবো এবং টুইটারে প্রকাশিত ভিডিও এবং ছবি থেকে জানা গেছে এ তথ্য। করোনা লকডাউনের কারণে আটকে পড়া, বাজে পরিবেশে কাজ করতে বাধ্য করার অভিযোগে ফক্সকনের আইফোন কারখানার শ্রমিকদের মধ্যে ক্ষোভ দানা বাঁধে। এ ক্ষোভ থেকেই সংঘর্ষের সূচনা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বুধবার (২৩ নভেম্বর) উইবোতে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দেখা যায়, দিনের বেলায় কয়েকশ মানুষ মিছিল করছেন। তাদের বাধা দেয়ার চেষ্টা করছে দাঙ্গা পুলিশ ও হাজমাট স্যুট পরিহিত কিছু ব্যক্তি। আরেকটি ভিডিওতে দেখা যায়, শ্রমিকরা তাদের দেওয়া খাবার নিয়ে অভিযোগ করছেন। অনেকে বলছেন তাদের বোনাস দেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হলেও সেটি দেয়া হয়নি।

বার্তাসংস্থা এএফপি জানিয়েছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম উইবোতে মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাতে লাইভে আসা এক শ্রমিককে বলতে শোনা যায়, ‘আমাদের অধিকার রক্ষা কর। আমাদের অধিকার রক্ষা কর।’ ওই শ্রমিকদের আটকাতে সামনে পুলিশ সদস্যদের দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। এছাড়া গাড়ির ভেতর থেকে ধোয়ার কুণ্ডলি ও শ্রমিকদের ব্যারিকেড দিতে দেখা যায়। যে ব্যক্তি ভিডিও ধারণ করছিলেন তিনি চেঁচিয়ে বলছিলেন, তারা ভেতরে আসছে। ধোঁয়ার বোমা! কাঁদানে গ্যাস।

বুধবার সকালে প্রকাশিত একটি ছবিতে আগুনে পোড়া একটি দরজা পড়ে থাকতে দেখা যায়। ধারণা করা হচ্ছে রাতের বেলা দরজাটি পোড়ানো হয়েছিল। এদিকে ফক্সকনের এই আইফোন কারখানায় কাজ করেন ২ লাখ শ্রমিক। কিন্তু এর ভেতরের পরিবেশ নিয়ে তারা প্রায়ই অভিযোগ করে থাকেন। বিশেষ করে করোনার লকডাউন এবং খাবারের মান নিয়ে অতিষ্ঠ তারা। এতে করে অনেক শ্রমিক কারাখানা ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। তাদের কাজে ফেরাতে ও আইফোন উৎপাদন সচল রাখতে ফক্সকনের পক্ষ থেকে বোনাস ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা দেয়ার প্রতিশ্রতি দেওয়া হয়। কিন্তু কোম্পানি এগুলো রক্ষা করছে না বলে অভিযোগ শ্রমিকদের। সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান