প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুরের ঘটনায় সোহাগের ১০ বছর কারাদণ্ড

Print Friendly, PDF & Email

জেলা প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুরের ঘটনায় সোহাগ আলী (২৫) নামে এক যুবককে ১০ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকালে নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালত ও বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-৭ এর বিচারক সাবিনা ইয়াসমিন এ রায় দেন। সোহাগ সোনারগাঁও উপজেলার সাহাপুর গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে।

নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান রায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সোনারগাঁও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অফিস থেকে প্রধানমন্ত্রীর ছবি নিয়ে শহীদ মিনারে ভাঙচুরের মামলার রায়ে সোহাগ আলীকে ১০ বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন।

আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট কেএম ফজলুর রহমান জানান, ২০১৫ সালের ২৭ ডিসেম্বর দুপুর সাড়ে ১২টায় সোনারগাঁও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অফিসে থেকে শেখ হাসিনার ছবি কৌশলে বের করে নিয়ে শহীদ মিনারের সামনে ভাঙচুর করে সোহাগ। এ সময় স্থানীয়রা বিষয়টি দেখে সোহাগ আলীকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দেয়। এ ঘটনায় উপজেলার সাট-মুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর আশরাফুল ইসলাম বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।