ক্যারিয়ারের প্রথম ৫ উইকেট নিয়ে মোসাদ্দেকের রেকর্ড

Print Friendly, PDF & Email

স্পোর্টস রিপোর্টার : নিজের কোটার শেষ ওভার করতে এসে মোসাদ্দেক তুলে নেন ক্যারিয়ারের প্রথম পাঁচ উইকেট। তার পঞ্চম শিকার মিল্টন সিমবা (৩)। স্লগ সুইপ করতে গিয়ে মিডউইকেটে হাসান মাহমুদের অসাধারণ ক্যাচে পরিণত হন তিনি। টি-টোয়েন্টিতে এটাই মোসাদ্দেকের প্রথম পাঁচ উইকেট।

বাংলাদেশের হয়ে চতুর্থ। তার আগে এই ফরম্যাটে পাঁচ উইকেট নিয়েছেন ইলিয়াস সানি, সাকিব আল হাসান এবং মুস্তাফিজুর রহমান। আজ মোসাদ্দেকের বোলিং ফিগার- ৪ ওভার, ২০ রান ৫ উইকেট। বাংলাদেশের হয়ে কোনো ডানহাতি অফ স্পিনারের এটাই সেরা বোলিং।

টানা দ্বিতীয় ম্যাচে টস হেরে ফিল্ডিংয়ে নেমে রোববার (৩১ জুলাই) শুরুতেই সাফল্য পায় বাংলাদেশ। বেশ চমক দেখিয়েই বোলিং উদ্বোধন করানো হয় পার্টটাইমার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে দিয়ে। তার চেয়েও বড় চমক দেন সৈকত ইনিংসের প্রথম বলেই রেজিস চাকাভাকে (০) অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহানের গ্লাভসবন্দি করে! একই ওভারের শেষ বলে ফেরান ওয়েসলি মাধভেরেকে (৪)। সেই অফ স্টাম্পের বল তাড়া করতে গিয়ে শেখ মেহেদির হাতে ধরা পড়েন ৪ রান করা ওয়েসলি মাধভেরে।

ফিরতি ওভারে এসে তৃতীয় শিকার ধরেন মোসাদ্দেক। এবার জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিন। ১ রান করে প্রথম স্লিপে ধরা পড়েন লিটন দাসের হাতে। ৬ রানে ৩ উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। মোসাদ্দেকের ধ্বংসযজ্ঞ তখনো শেষ হয়নি। ইনিংসের ৫ম ওভারে এসে মোসাদ্দেক চতুর্থ শিকার ধরেন। কট অ্যান্ড বোল্ড করে দেন সিন উইলিয়ামসকে (১)। আগের দিনই বিধ্বংসী ব্যাট করা জিম্বাবুয়েকে আজ যেন চেনাই যাচ্ছিল না। টপাটপ উইকেট পড়ছিল। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাদের সংগ্রহ ৭.৪ ওভারে ৫ উইকেটে ৩৬ রান।

সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ দলে এসেছে দুটি পরিবর্তন। আগের ম্যাচের একাদশ থেকে বাদ পড়েছেন স্পিনার নাসুম আহমেদ আর পেস তারকা তাসকিন আহমেদ। এই দুজনের বদলে দলে এসেছেন অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান ও পেসার হাসান মাহমুদ। প্রথম ম্যাচে ৪ ওভারে তাসকিন দিয়েছিলেন ৪২ রান। উইকেট পাননি একটিও। আর নাসুম ৪ ওভারে ৩৮ রান দিয়ে উইকেটশূন্য।

বাংলাদেশ একাদশ: লিটন দাস, মুনিম শাহরিয়ার, এনামুল হক, নাজমুল হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, আফিফ হোসেন, নুরুল হাসান (অধিনায়ক, উইকেটকিপার), মেহেদী হাসান, হাসান মাহমুদ, মুস্তাফিজুর রহমান, শরীফুল ইসলাম।