বিরল ঘটনার সাক্ষী হলো অ্যাশেজে ওল্ড ট্র্যাফোর্ড টেস্ট

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : ক্রিকেট ইতিহাসে কখনো এমন কোনো ঘটনা ঘটেছে কি না সন্দেহ। স্ট্যাম্পের ওপর বেল ছাড়াই খেলা চালিয়ে নেওয়া। তাও অ্যাশেজের মত হাই ভোল্টেজ ম্যাচে!

এমনই এক বিরল ঘটনার সাক্ষী হয়ে থাকল অ্যাশেজের ওল্ড ট্র্যাফোর্ড টেস্ট। যদিও বিষয়টি নিয়ে বিতর্কের কোনো অবকাশ নেই। নিয়ম মেনেই আম্পায়াররা খেলা পরিচালনা করেন স্ট্যাম্পের ওপর বেল ছাড়া।

বুধবার ম্যানচেস্টারে দফায় দফায় বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ থাকে প্রথম দিন। সারাদিনই প্রবল বেগে হাওয়া বইতে থাকে। এ অবস্থায় ম্যাচের মাঝেই বেশ কয়েকবার স্ট্যাম্প থেকে বেল পড়ে যায়। বারবার এমন প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হওয়ার কারণে ইনিংসের ৩২তম ওভারের মাথায় দুই আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনা ও মরিস ইরাসমাস সিদ্ধান্ত নেন স্ট্যাম্প থেকে বেল সরিয়ে দেওয়ার।

৩১.৩ ওভারের পর ক্রিকেটের ইতিহাসে বিরল ঘটনাটি চোখে পড়লো ম্যানচেস্টারে। প্রাথমিকভাবে ইংল্যান্ড অধিনায়র জো রুট এবং বোলার স্টুয়ার্ট ব্রড আপত্তি জানান। কিন্তু বিষয়টি নিয়মবিরুদ্ধ না-হওয়ায় তাদের আপত্তি আর ধোপে টেকেনি।

আইসিসি’র নিয়মাবলির ৮.৫ ধারায় উল্লেখ রয়েছে এই নিয়মের। সেখানে বলা আছে, প্রয়োজন মনে করলে আম্পায়াররা বেল সরিয়ে দিতে পারেন স্ট্যাম্প থেকে। তবে উইকেটের উভয় প্রান্তের স্ট্যাম্প থেকেই বেল সরিয়ে নিতে হবে। পরিস্থিতি অনুকূল হয়ে পুনরায় বেল যথাস্থানে ফিরিয়ে আনতে হবে।

তবে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে খুব বেশিক্ষণ বেল ছাড়া ম্যাচ গড়ায়নি। ৩৩ ওভারের পরই পুনরয়া বেল ফিরিয়ে আনা হয় স্ট্যাম্পে। অর্থাৎ ৯ বল খেলা হয় স্ট্যাম্পের উপর বেল ছাড়া।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ইতিহাস এই নিয়ে দ্বিতীয়বার বেল ছাড়া ম্যাচ অনুষ্ঠিত হলো। এর আগে ২০১৭ সালে আফগানিস্তান বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজের ম্যাচেও আম্পায়াররা বেল সরিয়ে নিয়েছিলেন কিছুক্ষণের জন্য।