আজীবন নিষিদ্ধ হলেন অনন্য মামুন

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : মালয়েশিয়ায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের আয়োজনে এক অনুষ্ঠানে অংশ নিতে গত ২২ ডিসেম্বর বাংলাদেশের শোবিজ অঙ্গনের একঝাঁক তারকা দেশটির রাজধানী কুয়ালালামপুর গিয়েছিলেন। পরদিন ‘বাংলাদেশি নাইট’ শিরোনামে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দেন তারা। কিন্তু অনুষ্ঠানের আড়ালে আদম ব্যবসা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করে মালয়েশিয়া পুলিশ। এ জন্য পরিচালক অনন্য মামুনকে আটক করে স্থানীয় পুলিশ।

 

জানা গেছে, এ অভিযোগে মামুনের সহযোগী শ্যামসহ আরো ৫৭ জন আটক হয়েছেন। বর্তমানে দেশটির কারাগারে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি অনন্য মামুনকে আজীবন নিষিদ্ধ করেছে। আজ শনিবার সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভা শেষে তাকে নিষিদ্ধ করার বিষয়টি সমিতির প্রতিটি সদস্যদের আনুষ্ঠানিক চিঠি দিয়ে জানানো হবে বলে রাইজিংবিডিকে জানান চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন।

২০১৫ সালের ২৬ ডিসেম্বর পরিচালক সমিতির এক জরুরি বৈঠকের মাধ্যমে প্রথম সদস্যপদ বাতিল করা হয় অনন্য মামুনের। তখন তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল- যৌথ-প্রযোজনার নামে প্রতারণা এবং জাল সার্টিফিকেট দিয়ে পরিচালক সমিতির সদস্যপদ নেওয়া। এরপর অঙ্গীকারনামা দিয়ে সেই সদস্যপদ ফিরে পান মামুন। অনন্য মামুন ২০১০ সালে ‘খোঁজ দ্য সার্চ’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু করেন। এরপর বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন তিনি। সর্বশেষ ‘বন্ধন’ নামে একটি সিনেমার কাজ তিনি শেষ করেছেন।

Be the first to comment on "আজীবন নিষিদ্ধ হলেন অনন্য মামুন"

Leave a comment

Your email address will not be published.




4 × 5 =