শিশু রাব্বী হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : রাজশাহীর মোহনপুরের চাঞ্চল্যকর স্কুলছাত্র রাব্বী (৬) হত্যা মামলায় তিন আসামিকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদ- কার্যকরের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাদের প্রত্যেককে তিন হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া একই মামলার আরেক আসামিকে যাবজ্জীবন (আমৃত্যু) সশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। তার জরিমানা করা হয়েছে ১০ হাজার টাকা। আর অভিযোগ প্রমাণিত না হাওয়ায় অপর তিন আসামিকে খালাস দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শিরিন কবিতা আকতার এ রায় ঘোষণা করেন।

এ সময় মামলার সাত আসামি আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণা পর পুলিশের প্রিজনভ্যানে করে দন্ডিতদের রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত তিন আসামি হলো, জেলার মোহনপুর উপজেলার বেড়াবাড়ী গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে মাজেদুর রহমান সাগর (২২), একই গ্রামের হজরত আলীর ছেলে নাজমুল হক (২৩) ও আবদুর রাজ্জাকের ছেলে রিপন সরকার লিটন।

এ মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত (আমৃত্যু) আসামির নাম আছিনুর বেগম (৪৮)। সে একই মামলায় ফাসির দন্ডপ্রাপ্ত আসামী সাজেদুর রহমান সাগরের মা। এ মামলায় বেকসুর খালাসপ্রাপ্ত অপর তিনজন হলেন, বেড়াবাড়ী গ্রামের আবদুল হাকিমের ছেলে শাহাবুদ্দিন, আলাউদ্দিনের ছেলে আমিনুল ইসলাম ও মৃত্যুদ-প্রাপ্ত সাগরের বাবা আবুল কাশেম।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, অপহরণের ছয় দিন পর গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর সকালে স্কুলছাত্র ফজলে হোসেন রাব্বীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার বেড়াবাড়ী সাধুপাড়া এলাকার গভীর নলকূপের নর্দমা থেকে মাথা ও হাত বিচ্ছিন্ন অবস্থায় ক্ষত-বিক্ষত মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। রাষ্ট্রপক্ষে চাঞ্চল্যকর এই মামলা পরিচালনা করেন, রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট এন্তাজুল হক বাবু। আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট একরামুল হক ও অ্যাডভোকেট মোশারফ হোসেন।

 

Be the first to comment on "শিশু রাব্বী হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি"

Leave a comment

Your email address will not be published.




17 − 16 =