রাঙামাটিতে সাবেক ইউপি সদস্যকে গুলি করে হত্যা

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় এক সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ইউপিডিএফ ও সদ্যগঠিত ‘ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক’ পরস্পরকে দায়ী করেছে।

নানিয়ারচর থানার ওসি মো. আব্দুল লতিফ জানান, মঙ্গলবার সকাল পৌনে ১০টায় হত্যাকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটে।

নিহত অনাধি রঞ্জন চাকমা (৫৫) উপজেলার চিরঞ্জীব দোজরপাড়া এলাকার কুমুজ্যা চাকমার ছেলে।

ইউপিডিএফ মুখপাত্র বাবলু চাকমার অভিযোগ, “নবগঠিত ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিকের ক্যাডাররা রঞ্জন চাকমাকে সকালে তার বাড়ি থেকে ডেকে গুলি করে হত্যা করে চলে যায়।

“রঞ্জন ছিলেন পাহাড়ে পূর্ণ স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে আন্দোলনরত পাহাড়িদের আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) সমর্থক।”

তিনি এ ঘটনার নিন্দাসহ প্রতিবাদ জানিয়ে হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের অবিলম্বে বিচারের দাবি জানিয়েছেন।

তবে ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিকের আহ্বায়ক তপন জ্যোতি চাকমা বর্মা বলছেন, “রঞ্জনসহ কয়েকজন ইউপিডিএফকর্মী কয়েক দিন ধরে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছিলেন আমাদের দলে যোগ দিতে। সকালে তারা আমাদের দলে যোগ দিতে আসার পথেই গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।”

তিনি হত্যাকাণ্ডের জন্য ইউপিডিএফকে দায়ী করেছেন।

এ বিষয়ে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ওসি লতিফ।

১৯৯৭ সালে পার্বত্যচুক্তির বিরোধিতা করে পাহাড়ে পূর্ণ স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে জন্ম নেয় প্রসিৎ বিকাশ খীসার নেতৃত্বে ইউপিডিএফ নামের সংগঠনটি। সম্প্রতি এই সংগঠন থেকে বহিষ্কৃত ও বের হয়ে যাওয়া কিছু নেতাকর্মী মিলে ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক নামে আরেকটি সংগঠন গড়েছে।

Be the first to comment on "রাঙামাটিতে সাবেক ইউপি সদস্যকে গুলি করে হত্যা"

Leave a comment

Your email address will not be published.




twenty − sixteen =