সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় অংশীদার হোন : কম্বোডিয়ায় প্রধানমন্ত্রী

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : বিনিয়োগের মাধ্যমে বাংলাদেশের সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় অংশীদার হতে কম্বোডিয়ার ব্যবসায়ীদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

কম্বোডিয়া সফরে সোমবার দেশটির রাজধানী নম পেনের হোটেল সোফিটেলে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ আহবান করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, “দুই দেশের মানুষের সমৃদ্ধির পথে আসুন সহযোগী হই। এক সাথে মিলে আমরা আমাদের লাখ লাখ মানুষের জীবনে পরিবর্তন আনতে পারি।”

কম্বোডিয়া চেম্বার অব কমার্সের (সিসিসি) আয়োজনে এই মতবিনিময়ের  আগে দেশটির প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে অংশ নেন দুই দেশের সরকারপ্রধান শেখ হাসিনা ও হুন সেন।

ওই বৈঠকের পর দুই দেশের ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি (এফবিসিসিআই) এবং কম্বোডিয়া চেম্বার অব কমার্সের মধ্যে একটি সহযোগিতা চুক্তি হয়।

মতবিনিময়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, যে প্রাতিষ্ঠানিক সহযোগিতা দুই চেম্বারের মধ্যে প্রতিষ্ঠিত হতে যাচ্ছে, পারস্পরিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগের আলোচনায় তা কার্যকর হয়ে উঠবে।”

মাত্র ১ কোটি ৬০ লাখ জনসংখ্যার দেশ কম্বোডিয়া প্রায় এক দশক ধরে ৭ শতাংশ হারে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ধরে রেখেছে। বাংলাদেশের সঙ্গে কম্বোডিয়ার দীর্ঘদিনের কূটনৈতিক সম্পর্ক থাকলেও দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্যের পরিমাণ মাত্র ৬৭ লাখ ডলার।

এর মধ্যে বাংলাদেশ থেকে ৪০ কোটি টাকার মত পণ্য কম্বোডিয়ায় যায়। আর বাংলাদেশ কম্বোডিয়া থেকে আমদানি করে ১৩ কোটি টাকার মত পণ্য।

বক্তব্যের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য বাংলাদেশে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা এবং সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন।

বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকায় ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল তৈরিতে উদ্যোগের পাশাপাশি দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশের চেয়ে উদার বিনিয়োগ নীতি প্রণয়নের কথাও তিনি বলেন।

শেখ হাসিনা জানান, বিনিয়োগ নীতির আলোকে বাংলাদেশ বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আইনি সুরক্ষা, বিশেষ কর অবকাশ সুবিধা এবং যন্ত্রপাতি আমদানিতে শুল্কছাড় দিচ্ছে।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন কম্বোডিয়া চেম্বারের সভাপতি নিয়েক ওকনাহা কিথ মেং। অন্যদের মধ্যে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী, কম্বোডিয়ার বাণিজ্যমন্ত্রী প্যান সোরাসাক, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ-বিডার নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী আমিনুল ইসলাম, থাইল্যান্ডে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সাঈদা মুনা তাসনিম এবং এফবিসিসিআই সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

Be the first to comment on "সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় অংশীদার হোন : কম্বোডিয়ায় প্রধানমন্ত্রী"

Leave a comment

Your email address will not be published.




ten − 4 =