উ. কোরিয়াগামী ফ্লাইট স্থগিত করেছে এয়ার চায়না

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : উত্তর কোরিয়াগামী বিমানের ফ্লাইট স্থগিত করেছে চীনের রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা এয়ার চায়না। অত্যন্ত গোপনীয় এই রাষ্ট্রের সঙ্গে বিশ্বের যোগাযোগ সীমিত করতে এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে চীন সরকার বলছে, ফ্লাইট বাতিলের এই সিদ্ধান্তের পেছনে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নেই। এটি এক ধরনের বাণিজ্যিক সিদ্ধান্ত।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বেইজিং সফর শেষে দেশে ফিরে যাওয়ার পরপরই ফ্লাইট স্থগিতের এ সিদ্ধান্ত জানাল এয়ার চায়না। এক সপ্তাহ আগে বেইজিং সফরে গিয়ে উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক কর্মসূচির লাগাম টেনে ধরতে পিয়ংইয়ংয়ের ওপর চাপ প্রয়োগে শি জিনপিংয়ের প্রতি আহ্বান জানান।

গত সপ্তাহে চীন বিশেষ দূত সং ত্যাও’কে উত্তর কোরিয়া সফরে পাঠায়। পিয়ংইয়ংয়ের পারমাণবিক ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার জেরে আন্তর্জাতিক উত্তেজনার মাঝে সংয়ের চারদিনের এই সফর শেষ হয়েছে সঙ্কটের ব্যাপারে কোনো ধরনের সরাসরি বিবৃতি ছাড়াই।

এর আগে গত এপ্রিলে উত্তর কোরিয়াগামী ফ্লাইট বাতিল করে এয়ার চায়না। গ্রাহক চাহিদা কমে যাওয়ার কারণে ফ্লাইট বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানানো হলেও কিছুদিন পর আবারো তা চালু করা হয়।

বুধবার এয়ার চায়নার কাস্টমার সার্ভিসের এক কর্মকর্তা বার্তাসংস্থা এএফপিকে বলেন, গত জুন থেকেই পিয়ংইয়ং-বেইজিংগামী কোনো ফ্লাইট চলাচল করছে না। পিয়ংইয়ংগামী ফ্লাইট বাতিলের পেছনে কোনো রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নেই বলে দাবি করেছে চীন।

Be the first to comment on "উ. কোরিয়াগামী ফ্লাইট স্থগিত করেছে এয়ার চায়না"

Leave a comment

Your email address will not be published.




5 × two =