গাজীপুরে একজনের মৃত্যুদণ্ড, দুইজনের যাবজ্জীবন

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : গাজীপুরে দুই বছর আগে ‘পূর্ব শত্রুতার জেরে’ এক ব্যক্তিকে ছুরি মেরে হত্যার ঘটনায় একজনকে মৃত্যুদণ্ড এবং দুইজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।
গাজীপুরের জেলা ও দায়রা জজ এ কে এম এনামুল হক আজ সোমবার এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।
আসামিদের মধ্যে পলাতক আলামিনকে (৩৪) মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন বিচারক।
আর রায় ঘোষণার সময় কাঠগড়ায় উপস্থিত কাঁকন ওরফে কালন (২৫) ও রকি ওরফে রাকিবকে (২৬) যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।
আলামিন বরিশাল কোতোয়ালি থানার পলাশপুর এলাকার শাহজাহান ফকিরের ছেলে, রাকিব গাজীপুরের টঙ্গী থানার মরকুন টেকপাড়া এলাকার আজগর আলীর ছেলে, কালন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা থানার শাহাপুর এলাকার ফজু মিয়ার ছেলে।
গাজীপুরের আদালত পরিদর্শক মো. রবিউল ইসলাম জানান, ২০১৫ সালের ১২ জুন টঙ্গীতে আমির হোসেন রিংকু হত্যার ঘটনায় আদালত এই রায় দিয়েছে।
রিংকু উত্তরায় রিজেন্ট হাসপাতালে চাকরি করতেন; থাকতেন টঙ্গীর আমতলা এলাকায়। সেদিন রাতে কর্মস্থল থেকে বাসায় ফেরার পথে তিনি হামলাকারীদের কবলে পড়েন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, সেই রাতে সাত থেকে আটজন ছিনতাইকারী রিংকুর গতি রোধ করে এবং মারধর শুরু করে। দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করলে আলামিন তাকে ছুরি মেরে হত্যা করেন।
পরদিন রিংকুর বাবা বাদী হয়ে টঙ্গী থানায় চারজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত সাত-আটজনকে আসামি করে টঙ্গী থানায় মামলা করেন।
টঙ্গী থানার এসআই বেলাল হোসেন চলতি বছরের ১১ মার্চ আদালতে অভিযোগপত্র দেন।
রাষ্টপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন পিপি হারিছ উদ্দিন আহম্মদ। আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন মো. মিজানুর রহমান রিপন ও আম্বিয়া আফরোজা রত্না।

Be the first to comment on "গাজীপুরে একজনের মৃত্যুদণ্ড, দুইজনের যাবজ্জীবন"

Leave a comment

Your email address will not be published.




1 × four =