খালেদার গাড়িতে হামলায় বিএনপির ১৩ নেতা-কর্মী আটক

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : ফেনীতে বিএনপি প্রধান বেগম খালেদা জিয়ার গাড়িবহরের পাশে বোমার আগুনে দুটি বাস পুড়ে যাওয়ার ঘটনায় বিএনপর ১৩ নেতা-কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

আটকরা হলেন- সোনাগাজী পৌর বিএনপির সভাপতি আবুল মোবারক ভিপি দুলাল, ফেনী পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর বাবুল ও ফুলগাজী উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি কামাল হোসেনসহ ১৩ জন। এর আগে বুধবার ফেনী মডেল থানা পুলিশের এসআই নুরুল হক এ ঘটনায় দলটির ২৯ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে ৩০-৩৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

 

ফেনী মডেল থানা পুলিশের ওসি রাশেদ খান চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, রোহিঙ্গাদের ত্রাণ বিতরণ শেষে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গাড়িবহর নিয়ে ঢাকায় ফেরার পথে মঙ্গলবার বিকেলে ফেনীর মহিপাল পার হওয়ার সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বোমা মেরে দুটি বাস পুড়িয়ে দেয় সন্ত্রাসীরা।

পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, এ ঘটনায় ৬ ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করে ও স্থানীয়দের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে নাশকতা সৃষ্টিকারীদের এই মামলায় আসামি করা হয়।

এদিকে আটক যমুনা বাস কোম্পানির পরিচালক আবুল কাশেম মিলন ও চালক আবদুল মালেক, চৌদ্দগ্রাম ট্রান্সপোর্টের মালিক চন্দন ভূমিক ও চালক হারুনুর রশিদ, ফাজিলপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সভাপতি নূরে সালাম মিলন ও পেয়ার আহাম্মদকে এই মামলার আসামি দেখিয়ে সন্ধ্যায় ফেনী সদর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে হাজির করা হয় এবং রিমান্ড চায় পুলিশ। পরে তিনি আসামিদের কারাগারে পাঠান।

Be the first to comment on "খালেদার গাড়িতে হামলায় বিএনপির ১৩ নেতা-কর্মী আটক"

Leave a comment

Your email address will not be published.




15 − twelve =