পিএসজির দুর্দান্ত জয়

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : লিগে আগের ম্যাচে নিষেধাজ্ঞার জন্য খেলতে পারেননি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ফিরে আবারও জ্বলে উঠলেন নেইমার। সঙ্গে লেইভিন কুরজাওয়ার হ্যাটট্রিকে দুর্দান্ত জয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে উঠে গেছে পিএসজি।

মঙ্গলবার রাতে ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে নিজেদের মাঠে বেলজিয়ামের দল আন্ডারলেখটকে ৫-০ গোলে হারিয়েছে উনাই এমেরির দল। দুর্দান্ত একটি গোল করার পাশাপাশি তিনটি গোলে অবদান রাখেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার নেইমার। অন্য গোলটি মার্কো ভেরাত্তির।

নিজেদের মাঠে প্রথম লেগে ৪-০ গোলে জিতেছিল পিএসজি।

ম্যাচের শুরুতেই এদিনসন কাভানির বাড়ানো বলে ডি-বক্স থেকে নেইমারের শট ফেরান গোলরক্ষক। ১৮তম মিনিটে ঠেকান নেইমারের ফ্লিক থেকে কিলিয়ান এমবাপের শটও।

একের পর এক আক্রমণ করে অবশেষে ৩০তম মিনিটে গোলের দেখা পায় পিএসজি। নেইমারের কাটব্যাক থেকে এমবাপের বাড়ানো বল ডি-বক্সে পেয়ে ডান পায়ের কোনাকুনি শটে জালে পাঠান ইতালিয়ান মিডফিল্ডার ভেরাত্তি।

প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে দুর্দান্ত গোলে ব্যবধান বাড়ান নেইমার। কর্নার থেকে বল পেয়ে ডি-বক্সের বাইরে আড়াআড়ি এগিয়ে জোরালো শটে জালে পাঠান ব্রাজিলের এই ফরোয়ার্ড।

বিরতির পর নেইমারের নৈপুণ্যেই তৃতীয় গোলটি পায় স্বাগতিকরা। ডি-বক্সের বেশ বাইরে থেকে বার্সেলোনার সাবেক ফুটবলারের ফ্রি-কিক পোস্টে লেগে ফিরলে কাছ থেকে বল জালে পাঠান ফরাসি ডিফেন্ডার কুরজাওয়া।

ঠিক সময়ে আবার ঠিক জায়গায় থেকে ৭২তম মিনিটে কুরজাওয়া পেয়ে যান নিজের দ্বিতীয় গোলটিও। ডান দিকে স্বদেশি দানি আলভেসকে উঁচু করে বল বাড়িয়েছিলেন নেইমার। ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডারের ক্রস থেকে ফাঁকায় বল পেয়ে ডাইভিং হেডে জালে পাঠান কুরজাওয়া।

ছয় মিনিট পর হ্যাটট্রিক পাওয়া গোলটি কুরজাওয়া করেন স্ট্রাইকারের মতোই। বদলি হিসেবে নামা আনহেল দি মারিয়ার পা হয়ে বল পেয়ে ডি-বক্সের বাঁ-দিক থেকে ঠাণ্ডা মাথায় নিচু শটে জালে পাঠান এই ডিফেন্ডার।

৪ ম্যাচে কোনো গোল না খাওয়া পিএসজি ১২ পয়েন্ট নিয়ে সবার আগে নক আউট পর্ব নিশ্চিত করেছে দুই ম্যাচ বাকি থাকতেই।

‘বি’ গ্রুপের অপর ম্যাচে সেল্টিকের মাঠে ২-১ গোলের জয়ে ৯ পয়েন্ট নিয়ে পিএসজির সঙ্গী হওয়া প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেছে বায়ার্ন মিউনিখ।
৩ পয়েন্ট স্কটল্যান্ডের দল সেল্টিকের। গ্রুপ পর্বে এখন পর্যন্ত কোনো গোলই করতে না পারা আন্ডারলেখটের পয়েন্ট শূন্য।

‘ডি’ গ্রুপে অলিম্পিয়াকোসের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে বার্সেলোনা। ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে এরনেস্তো ভালভেরদের দল।

অপর ম্যাচে গনসালো হিগুয়াইনের গোলে ‘ডি’ গ্রুপে পর্তুগালের স্পোর্তিং লিসবনের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে ইউভেন্তুস। ৭ পয়েন্ট নিয়ে মাস্সিমিলিয়ানো আল্লেগ্রির দল আছে দ্বিতীয় স্থানে।

তৃতীয় স্থানে থাকা স্পোর্তিংয়ের পয়েন্ট ৪; গ্রিসের অলিম্পিয়াকোসের ১।

‘এ’ গ্রুপে নিজেদের মাঠ ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে বেনফিকাকে ২-০ গোলে হারিয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ১২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা জোসে মরিনিয়োর দলকে সেরা ষোলো নিশ্চিত করতে হলে পরের দুই ম্যাচ থেকে এক পয়েন্ট পেলেই চলবে।

৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে এফসি বাসেল। সুইজারল্যান্ডের দলটিকে তাদের মাঠেই ২-১ গোলে হারানো সিএসকে মস্কো সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে পিছিয়ে আছে তৃতীয় স্থানে। পর্তুগালের বেনফিকার পয়েন্ট শূন্য।

‘সি’ গ্রুপে নিজেদের মাঠে ইতালিয়ান ফরোয়ার্ড স্তেফান এল শারাউইর জোড়া গোলে চেলসিকে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়েছে এএস রোমা। ৪ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে ‘সি’ গ্রুপে শীর্ষে রয়েছে ইতালির দলটি। ৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন চেলসি।

গ্রুপের অন্য ম্যাচে নিজেদের মাঠে কারাবাখের সঙ্গে ১-১ ড্র করা আতলেতিকো মাদ্রিদ ৩ পয়েন্ট নিয়ে আছে তৃতীয় স্থানে। ২ পয়েন্ট পাওয়া আজারবাইজানের দল কারাবাখের আশাও কাগজে কলমে টিকে আছে।

Be the first to comment on "পিএসজির দুর্দান্ত জয়"

Leave a comment

Your email address will not be published.




sixteen − eleven =