কাকরাইলে মা-ছেলেকে গলা কেটে হত্যা

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : রাজধানীর কাকরাইলের আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম রোডের এক বাড়িতে মা ও ছেলেকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। আজ বুধবার সন্ধ্যায় নিজেদের ফ্ল্যাটে খুন হন তাঁরা। নিজ ফ্ল্যাটের সামনের বারান্দায় ছেলে ও ঘরের ভেতর মায়ের লাশ পড়ে ছিল। ওই বাড়ির দারোয়ান পুলিশে খবর দিলে সাতটার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা সূত্রে জানা গেছে, ঘটনাস্থল ৭৯/এ আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম রোড, কাকরাইল। নিহত নারীর নাম শামসুন্নাহার (৪৫) ও তার নিহত ছেলের নাম শাওন (ও লেভেল শিক্ষার্থী)। নিহতের স্বামী আবদুল করিম পুরান ঢাকার শ্যামবাজারের ব্যবসায়ী। তিনি আঁদা-রসুন-পেঁয়াজ আমদানিকারক।

রমনা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বাড়িটির বেডরুমে মায়ের গলাকাটা মরদেহ এবং সিঁড়িতে সন্তানের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেছি।

ঘটনাস্থল থেকে ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার কৃষ্ণপদ রায় জানান, ‘ছয়তলা বাসার পঞ্চমতলায় তিনটি রুম নিয়ে তারা থাকতেন। এর মধ্যে নারীর মরদেহ বেডরুমে উপুর হয়ে শোয়ানো অবস্থায় পাওয়া গেছে। আর চতুর্থ তলার সিঁড়িতে উপুর হয়ে শোয়া অবস্থায় ছেলের মরদেহ পাওয়া গেছে।

তিনি বলেন, ডিএমপির ক্রাইম সিন ইউনিট আলামত সংগ্রহ করবে তাই মরদেহ উদ্ধার করিনি। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী আবদুল করিম, গৃহকর্মী রাশেদা বেগম ও একজন দারোয়ানকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করেছে।

তিনি আরও জানান, নিহত শামসুন্নাহারের তিন ছেলে। বড় ছেলে মুন্না লন্ডনে থাকে, মেজ ছেলে অনিক কানাডায় থাকে ও ছোট ছেলে নিহত শাওন।

Be the first to comment on "কাকরাইলে মা-ছেলেকে গলা কেটে হত্যা"

Leave a comment

Your email address will not be published.




nineteen + 8 =