রাখাইন থেকে আংশিক সেনা প্রত্যাহার

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : সংঘাতে বিধ্বস্ত মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চল থেকে আংশিক সেনা প্রত্যাহার শুরু হয়েছে। দেশটির সেনাবাহিনীর প্রধান মিন অং হ্লেইং তার ফেসবুক পেইজে দেয়া এক বিবৃতিতে রাখাইনের মংডু জেলা থেকে কয়েক ডজন সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসা) বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছিল। রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের এই সংগঠন স্থানীয়ভাবে হারাকাহ আল-ইয়াকিন নামে পরিচিত। গত ২৫ আগস্ট রাখাইনে ৩০টি পুলিশি তল্লাশি চৌকি ও একটি সেনা ব্যারাকে হামলা চালায় আরসা। হামলার জবাবে রাখাইনে ‘ক্লিয়ারেন্স অপারেশন’ শুরু করে সেনাবাহিনী।

 

গত ৫ সেপ্টেম্বর সেনাবাহিনীর অভিযান সীমিত করা হয় বলে বিবৃতিতে জানানো হয়, আগস্টে শুরু হওয়া সংঘাত দমনে কাজ করছে সেনাবাহিনী। রাজ্যের রাজধানী সিত্তেতে একটি সহায়ক বাহিনী গঠনের উদ্দেশ্যে রাখাইনের কিছু অঞ্চল থেকে সেনাবাহিনী প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে।

তবে ঠিক কতসংখ্যক সেনাসদস্য এবং সংশ্লিষ্ট কোন পদাতিক ডিভিশনকে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে সেবিষয়ে বিস্তারিত কোনো তথ্য দেননি সেনাপ্রধান হ্লেইং। বিবৃতির নিচে চারটি ছবি সংযুক্ত করা হয়েছে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, নৌবাহিনীর জাহাজ ও সামরিক বেশ কয়েকটি ট্রাকে করে রাখাইনের রাজধানী সিত্তেতে ফিরছেন সেনা সদস্যরা।

গোয়েন্দা সূত্রের বরাত দিয়ে মিয়ানমারের দৈনিক দ্য ইরাবতি বলছে, প্রায় ২০০ সেনাসদস্য মংডু জেলা থেকে সিত্তেতে ফিরে এসেছেন। এছাড়া আরো কমপক্ষে ১০০ সেনা ওই এলাকায় রয়েছে।

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর প্রধান ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতরের হুঁশিয়ারির মাত্র দুদিন পর রাখাইন থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা এল।

সূত্র : দ্য ইরাবতি।

Be the first to comment on "রাখাইন থেকে আংশিক সেনা প্রত্যাহার"

Leave a comment

Your email address will not be published.




four + 10 =