আজ বিশ্ব খাদ্য দিবস

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : অভিবাসনের ভবিষ্যৎ বদলে দাও, খাদ্য-নিরাপত্তা ও গ্রামীণ উন্নয়নে বিনিয়োগ বাড়াও- এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও উদযাপিত হচ্ছে বিশ্ব খাদ্য দিবস। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ তার বাণীতে বলেছেন, আবহমানকাল থেকেই কৃষি বাংলাদেশের উন্নয়নে প্রধানতম নিয়ামক হিসেবে বিবেচিত। গ্রামীণ মানুষের কর্মসংস্থান ও জীবনমান উন্নয়নে কৃষির অবদান সর্বোচ্চ। তাই দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের জন্য টেকসই কৃষি ব্যবস্থার কোনো বিকল্প নেই। বর্তমান সরকার কৃষি ও কৃষকের উন্নয়নে উদ্যোগ বাস্তবায়ন করছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে বলেছেন, ক্ষুধা, দারিদ্র্য, জলবায়ু পরিবর্তনসহ নানাবিধ সমস্যায় নিপতিত হয়ে মানুষ পরিত্রাণের আশায় প্রতিনিয়ত স্থানান্তরিত হচ্ছেন। এ অস্থিরতা বিশ্বব্যাপী সর্বজনীন হলেও বাংলাদেশের জন্য এটি বর্তমানে গভীর সমস্যা হিসাবে দেখা দিয়েছে। বিগত মাসাধিককালে পার্শ্ববর্তী দেশ মিয়ানমার থেকে পাঁচ লাখের বেশি মানুষ আমাদের দেশে অনুপ্রবেশ করেছেন।

তিনি বলেন, সীমিত সম্পদের এ দেশে আমাদের অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি কৃষি। কৃষির উৎকর্ষ সাধনের মাধ্যমেই গ্রামীণ জনগণের জীবনমান উন্নয়ন ও খাদ্য নিরাপত্তা দেওয়া সম্ভব। ফসলের পাশাপাশি মাছ, হাঁস-মুরগি ও গবাদিপশুর উৎপাদন বৃদ্ধি করতে হবে।

Be the first to comment on "আজ বিশ্ব খাদ্য দিবস"

Leave a comment

Your email address will not be published.




one × three =