মিসরে মিয়ানমার দূতাবাসে জঙ্গি হামলা

Print Friendly, PDF & Email

নিউজ ডেস্ক : মিসরের রাজধানী কায়রোতে মিয়ানমারের দূতাবাসে হামলা চালিয়েছে স্থানীয় জঙ্গিগোষ্ঠী হাজম। রোববার স্থানীয় এই জঙ্গিগোষ্ঠী দূতাবাসে ছোট বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে বলে দাবি করেছে। হাজম বলছে, রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অভিযানের প্রতিশোধ নিতে এই হামলা চালানো হয়েছে।

মিসরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দূতাবাসে শনিবারের এই বিস্ফোরণের ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করেনি। তবে স্থানীয় গণমাধ্যম ও বাসিন্দারা বলছেন, গ্যাস পাইপলাইনে ত্রুটির কারণে এই বিস্ফোরণ ঘটেছে। দুটি নিরাপত্তা সূত্র বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে বলছে, ঘটনাস্থলে বিস্ফোরণের আলামত পাওয়া গেছে।

এক বিবৃতিতে হাজম বলছে, ‘রাখাইন প্রদেশে মুসলিম নারী, শিশুদের হত্যাকারী ও খুনীদের জন্য এই বোমা হামলা দূতাবাসের কাছে সতর্ক সঙ্কেত।’

তবে এবারই প্রথম স্থানীয় এই জঙ্গিগোষ্ঠী কোনো বেসামরিক টার্গেটে হামলার দায় স্বীকার করল। গত বছর কায়রোতে বিচারক ও পুলিশের ওপর হামলাসহ বেশ কয়েকটি হামলার দায় স্বীকার করে হাজম।

বিবৃতিতে হাজম বলছে, আমরা সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করেছি, যাতে অভিযানের সময় বেসামরিক অথবা নিষ্পাপ কোনো মানুষ হতাহত না হয়। নতুবা আপনারা জ্বলন্ত নরক দেখতেন যা নেভানো যেতো না।

এদিকে, মিয়ানমার সরকারের মুখপাত্র দেশটির নাগরিকদের বিদেশে সতর্কতার সঙ্গে চলাফেরার নির্দেশ দিয়েছে। টুইটারে দেয়া এক বার্তায় সরকারের মুখপাত্র জ্য তে বলেছেন, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা মিয়ানমারের নাগরিকরা সতর্কতার সঙ্গে চলাফেরা করুন।

সূত্র : রয়টার্স।

Be the first to comment on "মিসরে মিয়ানমার দূতাবাসে জঙ্গি হামলা"

Leave a comment

Your email address will not be published.




17 + six =